নিজামীর ফাঁসির প্রতিবাদে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করলো তুরস্ক

নিজামীর ফাঁসির প্রতিবাদে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করলো তুরস্ক

জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের ঘটনায় বাংলাদেশে নিযুক্ত নিজ রাষ্ট্রদূতকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে তুরস্ক। নিজামীর ফাঁসির জন্য তাকে প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেসেফ তাইয়্যেফ এরদোগান।

বৃহস্পতিবার এরদোগান এই ঘোষণা দেন। কূটনৈতিক সূত্রের উদ্বৃতি দিয়ে এ খবর দিয়েছে তুরস্কের অনলাইন হুরিয়াত ডেইলি নিউজ। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার ঢাকা থেকে আঙ্কারায় পৌঁছার কথা রয়েছে তুর্কি রাষ্ট্রদূত ডেভরিম ওজতার্কের।

কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছেন, বাংলাদেশে নিযুক্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত বৃহস্পতিবারের মধ্যেই রাজধানী আঙ্কারায় পৌঁছবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর আগে ১১ই মে তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নিজামীর ফাঁসি দেয়ায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে।

নিজামীর ফাঁসির নিন্দা জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেফ এরদোগানও। তিনি ১০ই মে জানিয়েলেছেন, একজন মুজাহিদকে ফাঁসি দেয়ার মানসিকতার আমি নিন্দা জানাই। নিজামীর বয়স ৭০ বছরের ওপরে। আমি বিশ্বাস করি তিনি কোন অপরাধ করতে পারেন না।

তিনি জানান, এটা ঘৃণার বহিঃপ্রকাশ ছাড়া আর কিছুই না। বারবার অনুরোধ সত্ত্বেও তাকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে। এটা কোন সুশাসনও নয়, নয় কোন গণতান্ত্রিক মানসিকতা।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক