নির্বাচনী কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করলেন মঞ্জু

নির্বাচনী কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করলেন মঞ্জু

খুলনা সিটি নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু নির্বাচনি কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করেছেন।  দলীয় নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের অভিযোগের  প্রতিবাদে তিনি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ৯টায় মহানগরীর মিয়া পাড়া রোডের নিজ বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে মঞ্জু নির্বাচনী কার্যক্রম স্থগিতের ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, বুধবার রাত ৮টা থেকে বৃহস্পতিবার ভোর ৫টা পর্যন্ত নগরজুড়ে পুলিশ ও ডিবির সদস্যরা ধানের শীষের নির্বাচনী প্রচারণায় জড়িত বিভিন্ন পর্যায়ের ১৯ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে।

এছাড়া অসংখ্য নেতাকর্মীর বাড়িতে তল্লাশির নামে আতংক সৃষ্টি করা হয়েছে। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা হয়েছে।

নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, নির্বাচনের কাজে যুক্ত থাকলে পরিণতি হবে ভয়াবহ বলেও ডিবি হুমকি দিয়েছে। এ পরিস্থিতিতে বিএনপির নির্বাচনী প্রচারণামূলক সব কার্যক্রম আজ সকাল থেকে স্থগিত ঘোষণা করা হলো।

তিনি বলেন, গ্রেফতারকৃতদের না ছাড়া পর্যন্ত বিএনপির নির্বাচনী কার্যক্রম বন্ধ থাকবে।  গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে মহানগর বিএনপির প্রচার সম্পাদক ও সোনাডাঙ্গা থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আসুদুজ্জামান মুরাদ, মহানগর যুবদলের সভাপতি মাহবুব হাসান পিয়ারু, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা তুহিনের নাম উল্লেখ করে সংবাদ সম্মেলনে মঞ্জু বলেন, বিএনপিকে নির্বাচনী মাঠ থেকে সরাতে ও বিএনপির নির্বাচনকে বাধাগ্রস্থ করার জন্য পুলিশের এ সাঁড়াশি অভিযান। এ নির্বাচন নিয়ে সরকার ষড়যন্ত্র করছে। নির্বাচনে বিএনপির বিজয়কে বাধাগ্রস্থ করতে সরকার সব ধরনের চেষ্টা চালাবে বলে আমরা ইঙ্গিত পেয়েছি।

গত কয়েকদিন ধরে আমরা খবর পাচ্ছিলাম ৪ তারিখের পর বিএনপিকে মাঠ নামতে দেয়া হবে না। এ গ্রেফতার সেই ষড়যন্ত্রের অংশ, অভিযোগ মেয়র প্রার্থী মঞ্জুর।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট