নিষেধাজ্ঞার পরও ইরান থেকে তেল নেবে রাশিয়া

নিষেধাজ্ঞার পরও ইরান থেকে তেল নেবে রাশিয়া

রাশিয়ার জ্বালানিমন্ত্রী আলেকজান্ডার নোভাক বলেছেন, মার্কিন সরকারের নতুন নিষেধাজ্ঞা মোকাবেলা করতে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানকে সহযোগিতা করবে মস্কো। তিনি বলেন, আমেরিকার নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই মস্কো ইরান থেকে তেল নেবে।

আলেকজান্ডার নোভাক ফিন্যান্সিয়াল টাইমসকে বলেন, “আমরা বিশ্বাস করি আমাদের এমন উপায় বের করা উচিত যা ইরানসহ অন্য মিত্রদের সঙ্গে সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে সাহায্য করবে।”

আগামীকাল ৪ নভেম্বর ইরানের বিরুদ্ধে আমেরিকা দ্বিতীয় ধাপের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে বলে ঘোষণা দিয়েছে। আমেরিকা দাবি করছে এ নিষেধাজ্ঞার কারণে আন্তর্জাতিক বাজারে ইরানের তেল বিক্রি শূণ্যের কোঠায় নেমে যাবে। এ ক্ষেত্রে ইরানকে কোনো রকম সহযোগিতা করার বিষয়ে রাশিয়াকে হুঁশিয়ার করে দিয়েছে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন।

ইরান থেকে তেল নেয়ার বিষয়ে মার্কিন এ হুঁশিয়ারি সম্পর্কে রাশিয়ার কোনো উদ্বেগ নেই বলে জানান আলেকজান্ডার নোভাক। তিনি বলেন, “আমরা এরইমধ্যে নিষেধাজ্ঞার আওতায় আছি। জাতিসংঘের অনুমোদন ছাড়া একতরফা কোনো নিষেধাজ্ঞাকে আমরা স্বীকৃতি দেই না। আমরা মনে করি এসব পদক্ষেপ অবৈধ।”

নোভাক আরো বলেন, ‘পণ্যের বিনিময়ে তেল’ কর্মসূচির আওতায় আমরা ইরানের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক বাড়ানোর প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখব। মার্কিন নিষেধাজ্ঞার আগে ২০১৪ সালে ইরান ও রাশিয়ার মধ্যে এ চুক্তি সই হয়েছিল। চুক্তির আওতায় পণ্য ও যন্ত্রপাতির বিনিময়ে ইরান থেকে তেল নিয়ে থাকে রাশিয়া।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট