পদ্মা সেতু প্রকল্প এলাকা পরিদর্শনে রাষ্ট্রপতির সন্তোষ

পদ্মা সেতু প্রকল্প এলাকা পরিদর্শনে রাষ্ট্রপতির সন্তোষ

মুন্সীগঞ্জের মাওয়া এলাকায় পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ পরিদর্শন করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। সোমবার হেলিকপ্টারে করে তিনি পদ্মা সেতু প্রকল্পের সার্ভিস এরিয়া-১ এর নবনির্মিত হেলিপ্যাডে অবতরণ করেন।

এ সময় তাকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে গার্ড অব অনার দেয়া হয়। পরে তিনি সার্ভিস এরিয়ার-১ এর বিশেষ কটেজে অবস্থান করেন। সেখানে রাষ্ট্রপতির সামনে মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমে পদ্মা সেতুর সর্বশেষ কর্মযজ্ঞের তথ্য তুলে ধরেন কর্মকর্তারা।

এরপর মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার দোগাছি এলাকার সার্ভিস এরিয়া-১ থেকে কন্সট্রাকশন ইয়ার্ডের উদ্দেশে রওনা হন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। পরবর্তীতে জেলার লৌহজং উপজেলার মাওয়া এলাকার কুমারভোগ এলাকার পদ্মা সেতুর বিশেষায়িত কন্সট্রাকশন ইয়ার্ডের কার্যক্রম পরিদর্শন করেন তিনি। পরিদর্শন শেষে সিনোহাইড্রোর ঘাট-বি থেকে স্প্রিডবোটে করে কাঁঠালবাড়ির উদ্দেশে যাওয়ার পথে পদ্মা সেতুর সাড়ে চারশত মিটার দৃশ্যমান অবকাঠামো অবলোকন করেন। তিনি পদ্মা সেতুর দক্ষিণ প্রান্তে শরীয়তপুরের নাওডোবার সার্ভিস এরিয়া-২ এ বিকেল সাড়ে ৫টায় পৌঁছান।

মুন্সীগঞ্জ প্রান্তের সার্বিক কাজকর্ম পরিদর্শনকালে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন আহম্মেদ, মুন্সীগঞ্জ -১ আসনের সংসদ সদস্য সুকুমার রঞ্জন ঘোষ, মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য সাগুফতা ইয়াসমীন এমিলী, মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস, সেতু সচিব খন্দকার আনোয়ার ইসলাম, পদ্মা সেতু প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক শায়লা ফারজানা, মুন্সীগঞ্জ পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম পিপিএম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) হারুন-অর রশীদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী মাকসুদা লিমা প্রমুখ ছিলেন।

মঙ্গলবার ঢাকায় ফিরবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদ