পম্পেও’র অসংলগ্ন দাবি: ‘ইরান ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে আলোচনা করতে চায়’

পম্পেও’র অসংলগ্ন দাবি: ‘ইরান ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে আলোচনা করতে চায়’

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও আবার ইরানের বিরুদ্ধে অসংলগ্ন বক্তব্য দিয়েছেন। তিনি দাবি করেছেন, ইরান তার ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি নিয়ে আমেরিকার সঙ্গে আলোচনা করতে চায়। তিনি আমেরিকার স্থানীয় সময় মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মন্ত্রিসভার এক বৈঠকে দাবি করেন, ইরানি কর্মকর্তা তাদের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি নিয়ে আলোচনা করতে নিজেদের প্রস্তুতি ঘোষণা করেছেন।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমন সময় এ হাস্যকর দাবি করলেন যখন ইরান শুরু থেকে এ বিষয়ে অনড় অবস্থান নিয়ে ঘোষণা করেছে, সেদেশের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি ও প্রতিরক্ষা সক্ষমতা নিয়ে তেহরান কারো সঙ্গে কোনো ধরনের আলোচনা করবে না।  মন্ত্রিসভার ওই বৈঠকে ডোনাল্ড ট্রাম্পও কম যাননি। তিনি দাবি করেছেন, ইরানি কর্মকর্তারা তারা সঙ্গে আলোচনায় বসতে চান।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পসহ সেদেশের শীর্ষস্থানীয় নেতারা গত কয়েক মাসে অসংখ্যবার ইরানের সঙ্গে আলোচনায় বসার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তারা এমন সময় এ আগ্রহ প্রকাশ করছেন যখন ট্রাম্প প্রশাসন গত বছর ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকাকে বের করে নিয়ে ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করেছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট এক মুহূর্তের সিদ্ধান্তে পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেলেও এটি স্বাক্ষর করার জন্য ছয় জাতিগোষ্ঠী ও ইরানকে কয়েক বছর ধরে আলোচনা করতে হয়েছে।

আমেরিকার সঙ্গে কথিত আলোচনা প্রসঙ্গে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী গত মাসে তাঁর দেশের অবস্থান সুস্পষ্টভাবে ঘোষণা করেছেন। তিনি গত ২৬ জুন এক ভাষণে বলেন, ইরানের সামরিক শক্তি খর্ব করার লক্ষ্যে আমেরিকা তেহরানের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চায়। তিনি বলেন, ইরানের সামরিক শক্তিমত্তায় ভীত হয়ে হামলা করতে না পেরে তারা এখন এই শক্তিমত্তা খর্ব করতে চায় যাতে পরবর্তীতে শক্তিহীন ইরানের সঙ্গে যেমন খুশি তেমন আচরণ করতে পারে।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট