পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ চুক্তির বিষয়ে ট্রাম্পকে সতর্ক করলেন গর্বাচেভ

পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ চুক্তির বিষয়ে ট্রাম্পকে সতর্ক করলেন গর্বাচেভ

শীতল যুদ্ধকালীন পরমাণু অস্ত্র চুক্তি থেকে আমেরিকার বেরিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনাকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের প্রচেষ্টার ‘বিপরীতমুখী পদক্ষেপ’ বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক সোভিয়েত প্রেসিডেন্ট মিখাইল গর্বাচেভ। তিনি এই পরিকল্পনার পরিপক্কতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন।

শীতল যুদ্ধ শেষ হওয়ার কয়েক বছর আগে ১৯৮৭ সালে গর্বাচেভ তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রিগ্যানের সঙ্গে ইন্টারমেটিয়েট-রেঞ্জ নিউক্লিয়ার ফোর্স বা আইএনএফ নামের ওই চুক্তিতে সই করেছিলেন। চুক্তিতে ভূমি থেকে নিক্ষেপযোগ্য ৫০০ থেকে সাড়ে ৫ হাজার কিলোমিটার পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র নিষিদ্ধ করা হয়েছিল।

গর্বাচেভ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, ট্রাম্পের পদক্ষেপের ফলে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের লক্ষ্য অর্জনের যে চেষ্টা করছিল তা ব্যর্থ হবে।

রাশিয়া বহু বছর ধরে আইএনএফ লঙ্ঘন করে যাচ্ছে দাবি করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এটি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা ঘোষণা করেছেন। ট্রাম্পের এ পরিকল্পনার নিন্দা জানিয়ে পাল্টা পদক্ষেপ নেয়ার হুমকি দিয়েছে রাশিয়া।

ক্রেমলিন বলেছে, মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনের চলতি মস্কো সফরের সময় তার কাছে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা চাইবেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

আমেরিকার প্রথম মিত্র হিসেবে ট্রাম্পের পরিকল্পনার সমালোচনা করেছে জার্মানি।  জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেইকো মাস বলেছেন, মার্কিন পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে ইউরোপ এবং পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ প্রক্রিয়ার ওপর এর কি নেতিবাচক প্রভাব পড়বে তা আমেরিকার ভাবা উচিত।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট