পরিচয়পত্র পাচ্ছেন আড়াই লাখ রোহিঙ্গা

পরিচয়পত্র পাচ্ছেন আড়াই লাখ রোহিঙ্গা

মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর নিপীড়নে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গার মধ্যে আড়াই লাখ রোহিঙ্গা নাগরিক পরিচয়পত্র পাচ্ছেন। বাংলাদেশ সরকার এবং জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা (ইউএনএইচসিআর) তাদেরকে পরিচয়পত্র সরবরাহ করবে।

জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থা বলছে, রোহিঙ্গাদের এ নিবন্ধন মানবপাচারের বিরুদ্ধে সাহায্য করতে আইন প্রয়োগকারীর জন্য হাতিয়ার হিসেবে কাজ করবে।

সংস্থাটি বলছে, গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত বাংলাদেশে আড়াই লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থীর নিবন্ধন করা হয়েছে। তাদের প্রথম ধাপে এই কার্ড দেয়া হচ্ছে।

সংস্থাটির মতে, এটি তাদের প্রথম শনাক্তকরণ কার্ড এবং ভবিষ্যতে মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার অধিকারে এটি তাদের প্রমাণ।

এ বিষয়ে ইউএনএইচসিআরের মুখপাত্র আন্দ্রেজ মাহেসিক বলেছেন, আড়াই লাখের বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থী যৌথভাবে নিবন্ধিত হয়েছে এবং বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ ও ইউএনএইচসিআর তাদেরকে পরিচয়পত্র সরবরাহ করবে।

২০১৭ সালের আগস্টে সেনাবাহিনীর নিপীড়নে মিয়ানমার থেকে ৭ লাখ ৪০ হাজার রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। আগে থেকেই ৩ লাখ রোহিঙ্গা নাগরিক শরণার্থী শিবিরে আশ্রিত ছিলেন।

গত বছর বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের জন্য  চুক্তি হয়। যাতে প্রতি সপ্তাহে ১৫০০ রোহিঙ্গাকে ফেরত নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মিয়ানমারের অসহযোগিতায় বিষয়টা এখনো ঝুলে আছে।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট