পাট থেকে পলিথিন ব্যাগের যাত্রা শুরু

পাট থেকে পলিথিন ব্যাগের যাত্রা শুরু

বাণিজ্যিকভাবে পাট থেকে পরিবেশবান্ধব পলিথিন তৈরিতে যুক্তরাজ্যের একটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করেছে বাংলাদেশ পাটকল কর্পোরেশন (বিজেএমসি)।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে বিজেএমসির সচিব এ কে এম তারেক ও যুক্তরাজ্যের ফুটামুরা কেমিক্যাল কোম্পানির জেনারেল ম্যানেজার গ্রিমি কোলহার্ড সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। এ সময় বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম এবং মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়জুর রহমান চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে মির্জা আজম জানান, আগামী ৬ থেকে ৯ মাসের মধ্যে বাণিজ্যিকভাবে পাট থেকে পলিথিন উৎপাদন শুরু হবে। প্রথমদিকে স্বাভাবিক পলিথিনের তুলনায় এই পলিথিনের ব্যাগের দাম কিছুটা বেশি হবে। তবে উৎপাদন বাড়লে দামের সমন্বয় হয়ে যাবে।

মির্জা আজম জানান, পাট থেকে তৈরি এই পলিথিন ব্যাগের নাম হবে ‘সোনালী ব্যাগ’। এটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিজের পছন্দের করা নাম। সারা বিশ্বে এই নামেই পরিচিত হবে পাটের তৈরি পলিথিনের ব্যাগ।

মন্ত্রী বলেন, আমরা যখন সরকারের দায়িত্বভার গ্রহণ করি তখন পাট থেকে উৎপাদিত পণ্যের সংখ্যা ছিল ৩৫টি। বর্তমানে পাট থেকে উৎপাদিত পণ্যের সংখ্যা ২৮৫টি। একসময়ের গোল্ডেন ফাইবার (সোনালী আঁশ) হিসেবে পরিচিত এই পাট ভবিষ্যতে গোল্ডেন বার (সোনার বার) হিসেবে পরিচিত হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, বাজারে সোনালী ব্যাগের চাহিদা ব্যাপক হবে। আমরা যদি প্রতিদিন ৫০০ টন সোনালী ব্যাগ উৎপাদন করতে পারি তাহলে ৫০০ টনই বাজারজাত করা সম্ভব।

পাট থেকে পলিথিন তৈরির উদ্ভাবক মোবারক হোসেন বলেন, এই সোনালী ব্যাগ পরিবেশবান্ধব এবং পুনরায় উৎপাদনে সক্ষম।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট