পানমুনজম গ্রাম থেকে সেনা ও অস্ত্র সরিয়ে নেয়ার কাজ শুরু করেছে দুই কোরিয়া!

পানমুনজম গ্রাম থেকে সেনা ও অস্ত্র সরিয়ে নেয়ার কাজ শুরু করেছে দুই কোরিয়া!

উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে দুই দেশের সীমান্তবর্তী একটি গ্রামকে বেসামরিকরণ করার প্রক্রিয়া শুরু করেছে। সিউল বলেছে, কোরিয় উপদ্বীপে উত্তেজনা কমানোর জন্য যে চুক্তি হয়েছে তার আওতায় এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় আজ (বৃহস্পতিবার) ঘোষণা দেয় যে যৌথ নিরাপত্তা এলাকা (জেসিএ) হিসেবে খ্যাত পানমুনজম গ্রাম থেকে সব ধরনের ভারী অস্ত্র এবং নিরাপত্তা চৌকি সরিয়ে নেয়ার কার্যক্রম শুরু করেছে দুই কোরিয়া।

মন্ত্রণালয় আরো জানিয়েছে, আন্ত-কোরিয় সামরিক চুক্তি অনুযায়ী পানমুনজম গ্রামটি দুই পক্ষ থেকে ৩৫ জন নিরস্ত্র নিরাপত্তা কর্মী পাহারা দেবে এবং সেখানে পর্যটক এবং দর্শণার্থীরা অবাধে যাতায়াত করতে পারবে। চরম উত্তেজনাপূর্ণ পানমুনজমের ২৫০ কিলোমিটার এলাকায় দুই কোরিয়ার সেনাবাহিনীর পাশাপাশি মার্কিন নেতৃত্বাধীন জাতিসংঘ কমান্ড বা ইউএনসি মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছে।

এদিকে দুই কোরিয়ার পক্ষ থেকে নেয়া এ পদক্ষেপে অসুন্তষ্ট হওয়া ওয়াশিংটন বলেছে, কোরিয়ার বাফার জোন থেকে নিরাপত্তা কর্মীদের সরিয়ে নেয়ার সিউলের সিদ্ধান্তে বাস্তবসম্মত ঝুঁকি রয়েছে।

গত জুন মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন সিঙ্গাপুরে এক শীর্ষ সম্মেলনে মিলিত হন। বৈঠকে দুই পক্ষ কোরিয় উপদ্বীপকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের ব্যাপারে একমত হয় এবং একটি চুক্তিতে সই করে। তবে সেই চুক্তির বাস্তবায়ন এখনো ঘটেনি।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট