পিএসএলের নিয়ম অনুসরণ করবে আইপিএল!

পিএসএলের নিয়ম অনুসরণ করবে আইপিএল!

 

আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ‘রিভিউ সিস্টেম’ ক্রিকেটের চেহারাকে অনেকটাই বদলে দিয়েছে। এখন আউট নিয়ে নিশ্চিত হওয়ার কাজটা ক্রিকেটারদের পক্ষে আরও সহজ।

২০১৬ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটে চালু হয়েছিল ডিআরএস। এবার আইপিএল-এও ডিআরএস-এর ব্যবহার শুরু করার সবুজ সংকেত দিল বিসিসিআই।

গত বছর আইপিএল-এর এক ম্যাচে বিপক্ষ ক্রিকেটার আউটের পর অভ্যেসবশতই রিভিউ সিগন্যাল দেখিয়ে ফেলেছিলেন এমএস ধোনি। যা নিয়ে সেসব অনেক চর্চাও হয়। এবার সত্যি করেই এ দৃশ্য দেখা যাবে টুর্নামেন্টে। এর আগে শুধুমাত্র পাকিস্তান সুপার লিগে রিভিউ সিস্টেম ব্যবহারের প্রচলন ছিল।

বিশ্বের দ্বিতীয় ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট হিসেবে এবার ডিআরএস-এর স্বীকৃতি পেল আইপিএল।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড সূত্রে খবর, অনেকদিন ধরেই এই টুর্নামেন্টে রিভিউ সিস্টেম চালু করা নিয়ে ভাবনা-চিন্তা করছিল বোর্ড। অবশেষে ঠিক হয়, আসন্ন আইপিএল-এ এই নিয়ম কার্যকর হবে। আইসিসি ও অন্যান্য ক্রিকেট বোর্ড প্রথমে সব ধরনের ম্যাচে ডিআরএস-এর পক্ষে প্রশ্ন করলেও বিসিসিআই এই নিয়ম চালু করায় আপত্তি জানিয়েছিল। তাদের দাবি ছিল, এই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ স্বচ্ছ নয়। তবে বছর দেড়েক আগে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজের সময় এই প্রযুক্তিকে সবুজ সংকেত দেয় বিসিসিআই।

তবে তড়িঘড়ি করে নয়। আইপিএল-এ ডিআরএস চালু করার আগে সবরকম প্রস্তুতিই নিয়েছে বোর্ড। গত বছর ডিসেম্বরে দশ আম্পায়ারকে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। আইসিসির আম্পায়ার কোচ ডেনিস বার্নস ও পল রিফেল এসে আইপিএল-এর দায়িত্বে থাকা স্বদেশি আম্পায়ারদের রিভিউ সিস্টেমের সব খুঁটিনাটি বুঝিয়ে দিয়েছিলেন।

আসন্ন আইপিএল-এর ম্যাচের সঙ্গে জড়িত এক আম্পায়ার বলেন, “এদেশে ঘরোয়া ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত ডিআরএস-এর ব্যবহার নেই। তবে যেহেতু এবার আইপিএল-এ এই সিস্টেম অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে, তাই আমাদের জন্য বিশেষ একটি প্রশিক্ষণ ক্লাসের ব্যবস্থা করেছিল বোর্ড।”

রিভিউ সিস্টেম চালুর পর থেকে আউট সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া আগের থেকে অনেকটাই সহজ ও স্বচ্ছ হয়েছে। উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার ক্রিকেটারদের ধোঁয়াশা সম্পূর্ণ কাটিয়ে দিতে পারে অনায়াসেই। এবার এই সুবিধা পাওয়া যাবে আইপিএল-এও। বিসিসিআই-এর এই সিদ্ধান্তের পর ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলির মালিক ও ক্রিকেটারদের কী প্রতিক্রিয়া হয়, এখন সেটাই দেখার পালা।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট