পুলিশকে জনগণের বন্ধু হিসেবে কাজ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

পুলিশকে জনগণের বন্ধু হিসেবে কাজ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

পুলিশকে জনগণের কল্যাণ, শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘আপনারা জনগণের পুলিশ। তাদের কল্যাণ, শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা আপনাদের দায়িত্ব।’

রবিবার রাজশাহীর সারদায় বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে ৩৬তম বিসিএস ব্যাচের সহকারী পুলিশ সুপারদের (এএসপি) পাসিং আউট প্যারেডে বক্তব্যকালে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

‘বিপদের সময় জনগণের বন্ধু’ হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে পুলিশ কর্মকর্তাদের তাগিদ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আপনাদের অবশ্যই অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করতে হবে।’

তিনি বলেন, তার সরকার দেশকে উন্নত করেছে এবং এটিকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে কাজ করছে। আমরা দেশকে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলব। সেজন্য শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা অপরিহার্য।

প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন, সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে। পুলিশ এসব ক্ষেত্রে দক্ষতার সাথে তাদের দায়িত্ব পালন করছে এবং এজন্য আমরা জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ নির্মূল করতে সক্ষম হয়েছি। মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে এবং এটি অব্যাহত থাকবে যাতে এই ‘অন্ধকার সমস্যা’ দেশ থেকে দূর হয়।

মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশ পুলিশ সদস্যদের গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা বজায় রেখে ও জনগণের প্রত্যাশা পূরণের জন্য নতুন এএসপিদের সততা, আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সাথে তাদের দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দেন শেখ হাসিনা।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী পুলিশ বাহিনীর সালাম গ্রহণ করেন এবং মনোজ্ঞ প্যারেড পরিদর্শন করেন।

কোর্সের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অসাধারণ অবদান রাখায় মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন, মোহাম্মদ খায়রুল কবির, সাইফুল ইসলাম খান এবং মোহাম্মদ আবদুল্লাহকে পদক দেন প্রধানমন্ত্রী।

Image may contain: 2 people, people on stage, people standing, child and outdoor

এর আগে সারদা পুলিশ একাডেমিতে পৌঁছালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাভেদ পাটোয়ারি ও একাডেমির অধ্যক্ষ অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক মো. নাজিবুর রহমান প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট