প্রকাশ্যে টয়লেট করলেন আলিয়া !

প্রকাশ্যে টয়লেট করলেন আলিয়া !

 

অভিনয়ের জন্য কত কিছুই না করতে হয় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের। যে কোনও চরিত্রের উপযোগী করে তুলতে হয় নিজেদের। কখনও মোটা, তো কখনও রোগা। আবার কখনও বা একেবারে আনকোরা কোনও একটি চরিত্রের জন্য তৈরি করতে হয় নিজেকে। আর অভিনয় করতে গিয়ে অনেকরকম অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সম্মুখীনও হতে হয় তাঁদের। প্রকাশ্যে শৌচকাজও করতে হয় তাঁদের। অবাক লাগলেও এটাই সত্যি। আর সেই অভিজ্ঞতার কথা জানালেন আলিয়া ভাট।

শুটিং করতে গিয়ে নাকি একবার এই অভিজ্ঞতা হয়েছিল তাঁর। তখন হাইওয়ে ছবির শুটিং করছিলেন। রাস্তায় ট্রাক নিয়ে বেরিয়ে পড়েছেন শুটিং করতে। সেভাবে কোনও লোকেশন চিহ্নিত করা ছিল না। যেই লোকেশন তাঁদের পছন্দ হয়েছে ও আলো ভালো পেয়েছেন সেখানেই শুটিং করে নিয়েছেন। শুটিং হলেই বা, শরীর সে কথা শুনবে কেন? আর শুটিং চলাকালীন হঠাৎ টয়লেট পেয়ে যায় আলিয়ার। কিন্তু, আশপাশে যে কোথাও কোনও শৌচালয় নেই। এমনকী, ভ্যানিটি ভ্যানও নেই তাঁদের সঙ্গে। ফলে টয়লেট করবেন কোথায়? মাথায় হাত পড়ে যায়। অগত্যা কোনও চিন্তাভাবনা না করে রাস্তার ধারেই টয়লেট করেন আলিয়া।

সত্যি কী না করতে হয় অভিনয় করতে গেলে! তবে আলিয়া যথেষ্ট পেশাদার বলেই পরিচিত ইন্ডাস্ট্রিতে। তাই পরিচালককে অস্বস্তিতে না ফেলে রাস্তার ধারেই টয়লেট করে নেন তিনি। আর যেহেতু ছবির বেশিরভাগ অংশের শুটিং এভাবে কোনও লোকেশন নিশ্চিত না করেই হত, তাই মাঝে মধ্যেই এই অভিজ্ঞতা হত আলিয়ার। আর এই বিষয়ের সঙ্গে তিনি এতটা অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছিলেন যে সিনেমার মধ্যে প্রকাশ্যে টয়লেট করার শট দিতেও কোনও সমস্যাই তাঁর হয়নি।

স্টুডেন্ট অফ দা ইয়ার ছবির মাধ্যমে অভিনয় শুরু করেন আলিয়া। এরপর একে একে বিভিন্ন ছবিতে অভিনয় করে খ্যাতি কুড়িয়ে নিয়েছেন এই অভিনেত্রী। সম্প্রতি আয়োজিত IIFA অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে উড়তা পঞ্জাব ছবির জন্য সেরা অভিনেত্রীর খেতাবও জিতে নিয়েছেন তিনি।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট