ফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখলো কলকাতা

ফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখলো কলকাতা

আইপিএলের এলিমিনেটর ম্যাচে রাজস্থান রয়েলসকে ২৫ রানে হারিয়ে ফাইনালের আশা টিকে রাখল কলকাতা নাইট রাইডার্স। এই জয়ের ফলে শনিবার দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচের টিকিট নিশ্চিত হলো দিনেশ কার্তিকদের।

শনিবার সাকিব আল হাসানদের সানরাইজার্স হায়দরাবাদ এবং কলকাতা নাইট রাইডার্সের মধ্যকার খেলায় যারা জিতবে তারা ২৭ মে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বাধীন চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে ফাইনালে খেলবে।

কার্তিকের হাফসেঞ্চুরি ও আন্দ্রে রাসেলের ঝড়ো ৫০ ছুঁই ছুঁই ইনিংসে ভর দিয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে কলকাতা ৭ উইকেটে করে ১৬৯ রান। জবাবে। ২০ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ১৪৪ রানের বেশি করতে পারেনি রাজস্থান।

অথচ রাজস্থানের বোলারদের সামনে ধসে পড়েছিল কলকাতার টপ অর্ডার। কৃষ্ণপ্পা গৌতমের ঘূর্ণিতে ১৭ রানে হারায় ২ উইকেট। সুনীল নারিনের (৪) পর এই স্পিনার তুলে নেন রবিন উথাপ্পাকে (৩)। উইকেট সংখ্যা ‘৩’ হতেও সময় নেয়নি, যখন জোফরা আর্চারের বলে ৩ রান করে ফিরে যান নিতিশ রানা।

এই বিপর্যয়ের সময় দলকে টেনে তোলার চেষ্টা করেন অধিনায়ক দিনেশ কার্তিক ও ওপেনার ক্রিস লিন। আশা জাগিয়ে লিন ২২ বলে ১৮ রান করে আউট হলেও কার্তিক আরেকবার দেখান তার ব্যাটিং সামর্থ্য। চমৎকার ব্যাটিংয়ে বড় সংগ্রহের ভিত গড়েন এই উইকেটরক্ষক।

অসাধারণ এক হাফসেঞ্চুরি করে আউট হওয়ার আগে কার্তিক করেন ৫২ রান। ৩৮ বলের ইনিংসটি কলকাতা অধিনায়ক সাজান ৪ বাউন্ডারি ও ২ ছক্কায়। শুবমান গিলও রেখেছেন অবদান, ১৭ বলে এই তরুণ খেলে যান ২৮ রানের ইনিংস।

তবে কলকাতা লড়াই করার মতো পুঁজি পেয়েছে আন্দ্রে রাসেলের ওই ঝড়ো ইনিংসটির কল্যাণে। শেষ দিকে ক্রিজে এসে রাজস্থান বোলারদের ওপর ঝড় তোলেন তিনি। ২৫ বলে খেলেন হার না মানা ৪৯ রানের ইনিংস। ঝড়ো ইনিংসটি ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার সাজান ৩ চার ও ৫ ছক্কায়।

বোলিংয়ে চমৎকার দিন কাটিয়েছেন গৌতম, ৩ ওভারে ১৫ রান দিয়ে পেয়েছেন ২ উইকেট। তার সমান দুটি করে উইকেট পেয়েছেন আর্চার ও বেন লাফলিন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট