ফিক্সিংয়ের দোষ স্বীকার করলেন কানেরিয়া

ফিক্সিংয়ের দোষ স্বীকার করলেন কানেরিয়া

ছয় বছর ধরে ফিক্সিংয়ের অভিযোগ অস্বীকার করে আসছিলেন দানিশ কানেরিয়া। তারপরও তাকে ক্রিকেট থেকে আজীবন নিষিদ্ধ করে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) ও ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। সেই অপরাধে এসেক্স সতীর্থ মার্ভায়ান উস্টফিল্ডের সঙ্গে জেলেও যেতে হয়েছিল সাবেক এ স্পিনারকে। শেষ পর্যন্ত সাবেক এ পাকিস্তানি ফিক্সিংয়ের দোষ স্বীকার করে নিয়েছেন। বুধবার এক প্রতিবেদনে ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছে ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইল।

কাতারভিত্তিক টেলিভশন চ্যানেল আল-জাজিরার ডকুমেন্টারির বরাতে ডেইলি মেইল উদ্ধৃতি দিয়েছে, ‘আমার নাম দানিশ কানেরিয়া, ২০১২ সালে আমার বিরুদ্ধে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের আনা দুটি অভিযোগেই আমি দোষী ছিলাম।’

সেখানে কানেরিয়া আরও বলেন, ‘আমি উস্টফিল্ডের কাছে ক্ষমা চাইতে চাই। ক্ষমা চাই এসেক্সে ক্লাব ও সতীর্থদের কাছেও। সেই সঙ্গে এসেক্সের ক্রিকেট সমর্থক ও পাকিস্তানের কাছে দুঃখ প্রকাশ করছি।’

এরআগে ২০০৯ সালে একটি ওভারে নির্দিষ্ট পরিমাণ রান দেয়ার চুক্তিতে জুয়ারিদের কাছ থেকে ৬০০০ পাউন্ড ঘুষ নেয়ার অপরাধে দুই মাস জেল খাটেন উস্টফিল্ড। আর ওই ঘুষকাণ্ডে নাটের গুরু হিসেবে কাজ করেছিলেন কানেরিয়া। যে কারণে ক্রিকেট থেকে আজীবন নিষিদ্ধ হয়েছিলেন পাকিস্তানের এক সময়ের তারকা এ স্পিনার। তারপরও নিজের দোষ স্বীকার করে নেননি এ ডানহাতি লেগস্পিনার। শেষ পর্যন্ত দীর্ঘ ৬ বছর পর সব অপরাধ স্বীকার কিরে নিলেন তিনি।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট