ফ্রান্স সফরে ট্রাম্প, বিক্ষোভের মুখে পড়ার আশঙ্কা

ফ্রান্স সফরে ট্রাম্প, বিক্ষোভের মুখে পড়ার আশঙ্কা

 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরনের সঙ্গে বৈঠক করতে ফ্রান্স সফরে গেছেন। ট্রাম্প এমন সময় ফ্রান্স সফরে গেলেন যখন বিভিন্ন ইস্যুতে ইউরোপে তার জনপ্রিয়তা মারাত্মকভাবে হ্রাস পেয়েছে।

ওয়াশিংটন থেকে রাতের ফ্লাইটে বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ফ্রান্সে পৌঁছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার সঙ্গে কথিত যোগসাজশ এবং জাতীয়তাবাদী পররাষ্ট্র নীতি গ্রহণের ফলে যখন নিজ দেশে এবং দেশের বাইরে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন তখন সদ্য নির্বাচিত ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরনের আমন্ত্রণে প্যারিস সফর করছেন ট্রাম্প। ডোনাল্ড ট্রাম্পের কট্টোর জাতীয়তাবাদী স্লোগান ‘আমেরিকা ফার্স্ট’ নীতিতে ওয়াশিংটনের ঘনিষ্ঠ মিত্রদেশগুলোও খুশী হতে পারে নি বলে মনে করা হচ্ছে।

বিশ্বায়ন থেকে শুরু করে অভিবাসন –প্রতিটি বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং ম্যাকরনের মধ্যে খুব কমই মতের মিল রয়েছে। ফ্রান্সের এলিসি প্রাসাদের একজন কর্মকর্তা বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তন এবং বাণিজ্য ইত্যাদি যেসব বিষয়ে ওয়াশিংটন-প্যারিসের মধ্যে মতপার্থক্য রয়েছে তার কোনো কিছুই দুই নেতার আসন্ন বৈঠকে বাদ পড়বে না।

এদিকে, প্যারিস সফরের সময় ট্রাম্প সেখানে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পড়তে পারেন বলে সংবাদ মাধ্যমে খবর এসেছে। প্যারিস জলবায়ু চুক্তি থেকে বের হয়ে যাওয়ার ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ইউরোপ জুড়ে ব্যাপক নেতিবাচক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট