বাংলাদেশের সামনে বিশাল টার্গেট

বাংলাদেশের সামনে বিশাল টার্গেট

আজও বোলিংটা ভালো হলো না বাংলাদেশের। সেই সুযোগে রানের পাহাড় গড়ল শ্রীলঙ্কা। রবিবার সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে চার উইকেট হারিয়ে ২১০ রান সংগ্রহ করেছে শ্রীলঙ্কা। বাংলাদেশের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার এটি সর্বোচ্চ সংগ্রহ। সবমিলিয়ে টি-টোয়েন্টিতে শ্রীলঙ্কার এটি পঞ্চম সর্বোচ্চ সংগ্রহ। সিরিজে শ্রীলঙ্কা এখন ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে। সুতরাং, সিরিজ হার এড়াতে হলে বাংলাদেশের আজ জয়ের কোনও বিকল্প নেই।

সিলেটে রানের উইকেটে শুরুতেই ঝড় তোলেন কুশল মেন্ডিস ও দানুস্কা গুনাথিলাকা। ওপেনিং জুটিতে তাদের ব্যাটে আসে ৯৮ রান, ১১ ওভারে। ঝড়ো শুরুর পর শেষেও চার-ছক্কার তাণ্ডব চালিয়ে পাহাড় ঘেরা সিলেটে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যনাদের কাঁধে পাহাড় সমান লক্ষ্যই দিল সফরকারীরা।

টাইগার বোলারদের কঠিন পরীক্ষা নিয়েছেন কুশল মেন্ডিস। শ্রীলঙ্কার ইনিংসে তিনটি ক্যাচ ছেড়েছে বাংলাদেশের ফিল্ডাররা। শুরুটা মেন্ডিসের ক্যাচ ছেড়েই। ৮ রানে জীবন পাওয়ার পর বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন এ তরুণ। ৪২ বলে ৭০ রানের ইনিংস খেলে মোস্তাফিজের বলে যখন থামেন, ততক্ষণে রানের চূড়ায় উঠে গেছে লঙ্কানরা। ৬ চার ও ৩ ছক্কার ইনিংস তার।

মেন্ডিসের জুটি সঙ্গী গুনাথিলাকা থেমেছেন ৩৭ বলে ৪২ রানে, দুই জীবন পাওয়ার ইনিংসটি ৩ চার ও ২ ছক্কার। তিনে নামা পেরেরা ১৭ বলে ৩১ ও থারাঙ্গা ১৩ বলে ২৫ করে ফিরলেও শেষের ঝড় ধরে রাখেন দাসুন শানাকা। ৫ চার ও এক ছয়ে ১১ বলে ৩০ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছেড়েছেন।

টি-টুয়েন্টিতে এত রান করার বা টপকানোর রেকর্ড নেই বাংলাদেশের। তবে সিলেট স্টেডিয়ামের পরিসংখ্যান জেনে কিছুটা আশাবাদী হতে পারে স্বাগতিকরা। ২০১৪ সালের টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপে আয়ারল্যান্ডের করা ১৯০ রানের লক্ষ্য ১৩.৫ ওভারে টপকে চমকে দিয়েছিল নেদারল্যান্ড। পরে ব্যাটিং করা সহজ জেনেই টস জিতে আগে বোলিং নিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ। এখন ব্যাটসম্যানরা নিজেদের কাজটা করতে পারলেই হয়।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

শ্রীলঙ্কা ইনিংস: ২১০/৪ (২০ ওভার)

(দানুশকা গুনাথিলাকা ৪২, কুসল মেন্ডিস ৭০, থিসারা পেরেরা ৩১, উপুল থারাঙ্গা ২৫, দাসুন শানাকা ৩০*, দিনেশ চান্দিমাল ২*; আবু জায়েদ রাহি ১/৪৫, নাজমুল ইসলাম অপু ০/২৮, মেহেদী হাসান ০/২৫, মোস্তাফিজুর রহমান ১/৩৯, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ১/৪৬, সৌম্য সরকার ১/২৫)।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট