বাংলাদেশ-জেএমবির চার নারী সদস্যকে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে ৫ বছর করে কারাদণ্ড

বাংলাদেশ-জেএমবির চার নারী সদস্যকে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে ৫ বছর করে কারাদণ্ড

সিরাজগঞ্জে নিষিদ্ধ ঘোষিত জামিয়াতুল মুজাহেদিন বাংলাদেশ-জেএমবির চার নারী সদস্যকে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে ৫ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। রোববার সিরাজগঞ্জ বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক ফাহমিদা কাদের এ আদেশ দেন।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেো- সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার বাদুলতাপুর গ্রামের মাহবুবুর রহমানের স্ত্রী নাদিরা তাবাসসুম রানী (৩২), বগুড়ার শাহজাহানপুর থানার ক্ষুদ্র ফুলকোট গ্রামের খালিদ হাসানের স্ত্রী হাবিবা আক্তার মিশু (২০), গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ থানার বোচাগঞ্জ গ্রামের শাহারুল ইসলাম সর্দার ওরফে মামুনের স্ত্রী রুমানা বেগম (২১) ও বগুড়ার শাহজানপুর উপজেলার পরানবাড়ীয়া গ্রামের সুমন আহম্মেদ বিজয়ের স্ত্রী রুমানা আক্তার রুমা (২৩)।

সিরাজগঞ্জ জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট আব্দুর রহমান জানান, ২০১৬ সালের ২৩ জুলাই রাত ৩টার দিকে সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার মাসুমপুর উত্তরপাড়া মহলতার হুকুম আলীর বাড়িতে অভিযান চালায় গোয়েন্দা পুলিশ। এ সময় ওই বাড়ির ভাড়া দেয়া বাসা থেকে ছয়টি ককটেল, গ্রেনেড তৈরির উপকরণ, ১০টি ছোট সার্কিট বোর্ড, লোহার তৈরি গ্রেনেডের টি বডি ও নয়টি জিহাদি বইসহ জেএমবির ওই চার নারী সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। তবে অভিযানের আগেই তাদের স্বামীরা পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় সিরাজগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক রওশন আলী বাদী হয়ে ওই চারজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবির উপ-পরিদর্শক আবু সাঈদ এ মামলার তদন্ত শেষে ওই বছরের ২০ আগস্ট আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট