বাংলামোটরে শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার : ‘মাদকাসক্ত’ বাবা গ্রেফতার

বাংলামোটরে শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার : ‘মাদকাসক্ত’ বাবা গ্রেফতার

রাজধানীর বাংলামোটরে ৬ ঘণ্টা জিম্মি করে রাখা শিশু সন্তানকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই সঙ্গে ওই শিশু বাবাকে আটক করা হয়েছে। আরেক সন্তানকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার। নিহত ওই শিশুটির বাবার নাম নুরুজ্জামান কাজল।

পিতার হাতে সন্তান খুন! ভাবতেই শিউরে উঠতে হয়। জন্মের পর থেকে যে বাবা তার হাত ধরেই ছোট শিশুকে নিয়ে হাঁটা শেখায় সে হাতেই নিজের সন্তানকে খুন। সে যতই মাদকাসক্ত হোক না কেন। এ কারণে তার স্ত্রীও তাকে ছেড়ে চলে গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার (৫ ডিসেম্বর) সকাল ৮টার দিকে বাসা থেকে বের হন কাজল। বাসায় দোয়া পড়ানোর জন্য হুজুরকে নিয়ে আসেন তিনি। পরে হুজুর ওই বাসা থেকে বেরিয়ে দাবি করেন, সেখানে এক শিশু সন্তানকে অচেতন অবস্থায় দেখেছেন তিনি। বিষয়টি শাহবাগ থানার পুলিশকে জানান তিনি।

কাজলে ভাই নুরুল হুদা উজ্জ্বল বলেন, ‘কাজলের দুই সন্তান। একজন সাফায়েত, তার বড় আরেকজন আছে সুরায়েত। আমরা সাফায়েতের মৃত্যুর সংবাদ শুনে ঘটনাস্থলে এসেছি। সকালে বাসায় ঢুকতে গিয়েও পারিনি।’

কাজলকে মাদকাসক্ত দাবি উজ্জ্বল আরো বলেন, ‘বাবাই খুন করেছেন সাফায়েতকে। কারণ কাজল মাদকাসক্ত। আর আমরা যখন বাসায় ঢুকতে গেছি, তখন কাজল আমাদের দিকে দা নিয়ে তেড়ে আসেন। সুরায়েত বাবার কাছেই আছে।’

র‍্যাব-২ এর এসআই শহীদুল ইসলাম গণমাধ্যমের কাছে দাবি করেছেন, ‘আমি ভেতরে ঢুকে দেখেছি, নুরুজ্জামান কাজল তার ছোট শিশুকে কাফনের কাপড় পরিয়ে টেবিলের ওপর রেখেছেন। এ ছাড়া বড় সন্তানকে বুকে জড়িয়ে হাতে বড় রামদা নিয়ে বসে আছেন।’ শিশুটির বাবাকে কোনো সাহায্য লাগবে কি না—জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আপনাদের কারও সাহায্য লাগবে না। আপনারা কেন এসেছেন? আপনারা চলে যান। দুপুর ১টার দিকে আমি নিজে আজিমপুর কবরস্থানে গিয়ে আমার ছেলেকে দাফন করব।’

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট