বায়তুল মুকাদ্দাসে দূতাবাস সরানোর সিদ্ধান্ত হয় নি: ব্রাজিলের নয়া প্রেসিডেন্ট

বায়তুল মুকাদ্দাসে দূতাবাস সরানোর সিদ্ধান্ত হয় নি: ব্রাজিলের নয়া প্রেসিডেন্ট

ব্রাজিলের নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো বলেছেন, জেরুজালেমে (বায়তুল মুকাদ্দাস) দূতাবাস সরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয় নি। ‘ব্রাজিলের ট্রাম্প’ নামে খ্যাত বোলসোনারো গত সপ্তাহে বলেছিলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অনুসরণ করে তিনি দূতাবাস জেরুজালেমে নিয়ে যাবেন।

এরপরই বিশ্বের বিভিন্ন দেশ তার এ ঘোষণার প্রতিবাদ জানায়। ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস তার ওই সিদ্ধান্তকে উসকানিমূলক ও অবৈধ বলে ঘোষণা দেয়। ব্রাজিলের বিভিন্ন মহল থেকেও প্রতিবাদ হয়েছে।

এরপর গতকাল (মঙ্গলবার) ব্রাজিলের নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, ব্রাজিলের দূতাবাস তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নেয়ার বিতর্কিত পরিকল্পনা থেকে সরে আসতে তিনি প্রস্তুত রয়েছেন। ব্রাজিলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলোসিও নুনেসের পূর্ব নির্ধারিত মিশর সফর বাতিল করার ব্যাপারে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কট্টর ডানপন্থী এ রাজনীতিবিদ এসব কথা বলেন। মিশর সরকারের পক্ষ থেকে পূর্ব নির্ধারিত ওই সফর বাতিল করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

গত ২৮ অক্টোবরের দ্বিতীয় দফার নির্বাচনে জয়লাভ করেন জাইর বোলসোনারো। আগামী ১ জানুয়ারি তার দায়িত্ব নেয়ার কথা রয়েছে। অত্যন্ত কট্টর নীতি অনুসরণ করার কারণে অনেকে তাকে ‘ব্রাজিলের ট্রাম্প’ বলে অভিহিত করে থাকেন।

গত মে মাসে ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে মুসলমানদের শহর জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যদিয়ে আমেরিকা ইসলামি শহর জেরুজালেমকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। তবে মুসলিম উম্মাহ এবং বিশ্বের ন্যায়কামী মানুষেরা জেরুজালেম বা বায়তুল মুকাদ্দাসকে ফিলিস্তিনের রাজধানী বলেই মনে করে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট