বিপিএল-এর সপ্তম আসরের প্লেয়ার্স ড্রাফট অক্টোবরে

বিপিএল-এর সপ্তম আসরের প্লেয়ার্স ড্রাফট অক্টোবরে

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ( বিপিএল) ৭ম সংস্করনের দিনক্ষন নির্ধারিত হয়েছে বেশ আগেই। আগামী ৬ ডিসেম্বর মাঠে গড়াবে বিপিএল। ৩ ডিসেম্বর জমজমাট অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বিপিএলের আগমনী ঘন্টা বাজাবে গভর্নিং কাউন্সিল।

বিপিএলের আগমনী বার্তা পেয়েই রংপুর রাইডার্স দেশসেরা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে দলে টেনেছে, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স নিয়েছে মুশফিকুর রহিমকে। তামিমকে নিয়েছে খুলনা টাইটান্স।

তবে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সঙ্গে ফ্রাঞ্চাইজিদের প্রথম ৬ বছর মেয়াদি চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ায় পরবর্তী আসরের জন্য নুতন করে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার বাধ্যবাধকতা থাকায় ওই তিন ফ্রাঞ্চাইজি তিন ক্রিকেটারকে দলে ভেড়াতে পারছে না। ৭ম থেকে ১০ম, এই চার সংস্করনের জন্য নুতনভাবে ফ্রাঞ্চাইজিদের সাথে চুক্তিবদ্ধ হবে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। সে কারনেই চুক্তির সকল শর্ত ঠিক করে খেলোয়াড়দের ক্যাটাগরী নির্ধারন করে প্লেয়ার্স ড্রাফট অনুষ্ঠান করতে চায় বিসিবি।

সোমবার তিন ফ্রাঞ্চাইজি ঢাকা ডায়নামাইটস,খুলনা টাইটান্স এবং রাজশাহী কিংস এর সাথে কথা বলেছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। অবশিস্ট ফ্রাঞ্চাইজিদের সাথেও বলবে কথা।পুরোপুরি নুতনভাবে ক্রিকেটারদের নিলাম এবং প্লেয়ার্স ড্রাফট হবে বলে জানিয়েছেন বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ডা. আই এইচ মল্লিক-‌ ‘ প্লেয়ার দলে নেয়ার যে কাজ হয়েছে, তা আমরা স্বীকৃতি দিচ্ছি না, দেই না। এ বছরের আমাদের প্লান হলো অকশন অথবা প্লেয়ার্স বাই ড্রাফট হবে, একদম ফ্রেশ হবে। রিটেইন প্রক্রিয়া ফাইনাল করিনি।’

২টি ফ্রাঞ্চাইজি’র রিপ্লেশমেন্ট এখনো খুঁজছে গভর্নিং কাউন্সিল। সব ফ্রাঞ্চাইজিদের সাথে চুক্তি সম্পন্ন করে আগামী অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ে প্লেয়ার্স ড্রাফট সম্পন্ন করা যাবে বলে মনে করছেন অকশন কমিশনার এবং বিসিবি পরিচালক মাহবুব আনাম-‌’অক্টোবরের মাঝামাঝি অকশন বা প্লেয়ার্স ড্রাফট হবে। প্রতিটি দল দেড় মাসের মতো সময় পাবে দল গোছানোর। আজকে তিনটি দল এসেছিলো, তারা দেড় মাসের মধ্যে দল গোছানোর বিষয়ে আশাবাদী। শিগগিরই তাদের সাথে চুক্তি সম্পন্ন করা হবে।’

নুতন চুক্তির আগে রেভিউনিউ শেয়ারিংয়ের প্রস্তাব দিয়েছে ৩টি ফ্রাঞ্চাইজি। সকল খাতে আয়ের অংশ থেকে অর্থ বন্টনের দাবি তুলেছে ফ্রাঞ্চাইজিরা। পাশাপাশি ফ্রাঞ্চাইজি ফি বর্ধিত করার পরিকল্পনাও আছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের।তবে এবারো হোম এন্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে বিপিএল আয়োজন সম্ভব নয়। তিনটির বেশি ভেন্যুতে হবে না বিপিএল-তা জানিয়েছেন গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট