বিশ্বকাপে দ্বিতীয় ম্যাচেও হার সালমাদের

বিশ্বকাপে দ্বিতীয় ম্যাচেও হার সালমাদের

নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কিছুতেই ব্যাটিং ব্যর্থতার বৃত্ত ভাঙতে পারছে না বাংলাদেশ। যে কারণে বৈশ্বিক এ টুর্নামেন্টে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেও হারই সঙ্গী হয়েছে টাইগ্রেসদের। মঙ্গলবার সেন্ট লুসিয়ায় বৃষ্টি আইনে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সালমা খাতুনের দল হেরেছে ৭ উইকেটে।

টস হেরে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ৭৬ রানের বেশি করতে পারেনি বাংলাদেশ। আয়েশা খাতুন করেন ৩৯ রান। জবাব দিতে ৯ ওভার শেষে ইংল্যান্ডের রান যখন ৩ উইকেটে ৫৫, তখন নামে বৃষ্টি। দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষার পর খেলা শুরু হলে তাদের নতুন লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৬ ওভারে ৬৪। মানে ৭ ওভারে করতে হবে ৯ রান। ইংল্যান্ডের লেগেছে মাত্র তিন বল। ২৮ রানে অপরাজিত ছিলেন জোন্স। এরআগে ‘এ’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ও স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১০৭ রান তাড়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সর্বনিম্ন ৪৬ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। ম্যাচ হেরেছিল ৬০ রানে।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ২০ ওভার পর্যন্ত টিকে থাকলেও ৯ উইকেটে ৭৬ রানের বেশি এগোতে পারেনি বাংলাদেশ। বাংলাদেশের প্রথম ছয় ব্যাটারের চারজনের বিদায় শূন্য রানে। দলের ব্যাটিংয়ের দুরবস্থা বোঝা যায় সহজেই।

ওপেনার আয়েশা রহমান যা একটু লড়েছেন। ১৩তম ওভারে দলীয় ৪২ রানে আয়েশা যখন চতুর্থ ব্যাটার হিসেবে ফিরলেন, তার একার রানই ৩৯! ৫২ বলে ২ চার ও ৩ ছক্কায় ইনিংসটি সাজান তিনি। তার আগে আউট হওয়া শামিমা সুলতানা, ফারজানা হক ও নিগার সুলতানা রানের খাতাই খুলতে পারেননি।

বাংলাদেশের প্রাপ্তি একটাই যে অলআউট হয়নি! পরের ব্যাটারদের মধ্যে দুই অঙ্ক ছুঁয়েছেন শুধু দু’জন। রুমানা আহমেদ ১০ ও জাহানারা আলম করেন ১২ রান।

৪ ওভারে ১৬ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডের সেরা বোলার অভিষিক্ত বাঁহাতি স্পিনার ক্রিস্টিয়ে গর্ডন। ৪ জন পেয়েছেন একটি করে উইকেট।

রান তাড়ায় ইংল্যান্ড ৯ ওভারে ৩ উইকেটে ৫৫ রান তোলার পর বৃষ্টিতে বন্ধ হয় খেলা। পরে লক্ষ্য নেমে আসে ১৬ ওভারে ৬৪ রানে। ইংলিশরা বাকি ৯ রান করে ফেলে ৩ বল খেলেই।

রান তাড়ায় খুব ভুগতে হয়নি ইংলিশদের। অ্যান্ড্রু জোন্স করেছেন ২৪ বলে অপরাজিত ২৮, নাটালি শিভার ১৭ বলে ২৩। এতে ইংল্যান্ড জিতে যায় সহজেই।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ

২০ ওভারে ৭৬/৯ (শামিমা ০, আয়েশা ৩৯, , ফারজানা ০, নিগার ০, রুমানা ১০, সানজিদা ০, লতা ৫, জাহানারা ১২, ফাহিমা ২, সালমা ৩*, কুবরা ২*; শিভার ১/৭, শ্রাবসোল ১/১৪, স্মিথ ১/১৭, গর্ডন ৩/১৬, এক্লেস্টোন ১/২০, সাইট ০/২)।

ইংল্যান্ড

(লক্ষ্য ১৬ ওভারে ৬৪) ৯.৩ ওভারে ৬৪/৩ (ওয়াইট ০, বিউমেন্ট ২, জোন্স ২৮*, শিভার ২৩, নাইট ১১*; সালমা ৩-০-১৭-২, রুমানা ২.৩-০-২২-০, কুবরা ২-০-১৩-১, ফাহিমা ১-০-৯-০, জাহানারা ১-০-৩-০)।

ফল

ইংল্যান্ড ৭ উইকেটে জয়ী

প্লেয়ার অব দা ম্যাচ

কার্স্টি গর্ডন

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট