ভারতের জয়ের রথ থামালো দ. আফ্রিকা

ভারতের জয়ের রথ থামালো দ. আফ্রিকা

জোহানেসবার্গে বৃষ্টিবিঘ্নিত চতুর্থ ওডিআইতে সহজ জয় পেয়েছে সাউথ আফ্রিকা । টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা ভারত নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৮৯ রান তোলে। জবাবে বৃষ্টি বাধায় স্বাগতিকদের পরিবর্তিত টার্গেট দাড়ায় ২৮ ওভারে ২০২ রান।  ৫ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে মার্করামের দল।

প্রোটিয়ারা এতে সিরিজে টিকে থাকল। ছয় ম্যাচের সিরিজে ভারত এগিয়ে ৩-১ ব্যবধানে। মঙ্গলবার পোর্ট এলিজাবেথে পঞ্চম ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে দুদল।

জোহানেসবার্গে শুরুতে ব্যাট করে ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৮৯ রান তোলে ভারত। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে সাউথ আফ্রিকার সামনে পরিবর্তিত লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৮ ওভারে ২০২; ১৫ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখেই সেটি টপকে যায় স্বাগতিকরা।

ওয়ান্ডারার্সে শুরুতেই রোহিত শর্মাকে (৫) হারায় ভারত। পরে যথারীতি শেখর ধাওয়ান ও বিরাট কোহলির প্রতিরোধ। দুজনে ১৫৮ যোগ করেন। ৮৩ বলে ৭ চার ও একটি ছক্কায় কোহলি ৭৫ রানে ফিরলে ভাঙে উড়তে থাকা জুটি।

পরে সেঞ্চুরি তুলে নেন ধাওয়ান, শততম ওয়ানডেতে ক্যারিয়ারের ১৩তম। শততম ওয়ানডেতে আর কোন ভারতীয়র সেঞ্চুরি নেই। তবে বিশ্বে আরও আটজন আছেন। এটি ২০০১ সালের পর প্রোটিয়াদের বিপক্ষে তাদের মাটিতে ভারতের কোন ওপেনারের প্রথম সেঞ্চুরিও।

তখনও সামান্য হানা দিয়েছিল বৃষ্টি। সেটা থামলে ১০৯ রানে ফিরে যান ধাওয়ান। ১০৫ বলে ১০ চার ও ২ ছক্কার ইনিংস সাজিয়ে। পরে মহেন্দ্র সিং ধোনি ছাড়া আর কারও ব্যাটে প্রতিরোধ আসেনি। সাবেক অধিনায়ক করেন ৪২ রান।

জবাব দিতে নেমে আফ্রিকানরা দেখেশুনেই এগিয়েছে। টপ অর্ডারে অধিনায়ক মার্করাম ২২, আমলা ৩৩, ডুমিনি ১০, এবি ডি ভিলিয়ার্স ২৬ রানের অবদান রাখেন।

সেখান থেকে মিলার ও ক্লাসেন ৭২ রান যোগ করে ম্যাচের লাগাম টেনে নেন। ৪ চার ও ২ ছয়ে ২৮ বলে ৩৯ রানে ফেরেন মিলার।

ফেলুকোয়ওকে নিয়ে বাকিটা কাজটা সারেন ক্লাসেন। ২৭ বলে অপরাজিত ৪৩ রানের ইনিংস তার, ৫ চার ও এক ছয়ে। আর মাত্র ৫ বলে অপরাজিত ২৩ রানের ঝড় তোলেন ফেলুকোয়ও, এক চার ও ৩ ছয়ে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত: ২৮৯/৭ (৫০ ওভার)

(রোহিত ৫, ধাওয়ান ১০৯, কোহলি ৭৫, রাহানে ৮, আয়ার ১৮, ধোনি ৪২*, পান্ডিয়া ৯, ভু্বনেশ্বর ৫, কুলদীপ ০*; মর্কেল ১/৫৫, রাবাদা ২/৫৮, নগিডি ২/৫২, মরিস ১/৬০, ফেলুকওয়ায়ো ০/৩৮, দুমিনি ০/২০)

দক্ষিণ আফ্রিকা: ২৫.৩ ওভারে ২০৭/৫  (২৮ ওভারে লক্ষ্য ২০২)

(মারক্রাম ২২, আমলা ৩৩, দুমিনি ১০, ডি ভিলিয়ার্স ২৬, মিলার ৩৯, ক্লাসেন ৪৩*, ফেলুকওয়ায়ো ২৩*; ভুবনেশ্বর ০/২৭, বুমরাহ ১/২১, কুলদীপ ২/৫১, পান্ডিয়া ১/৩৭, চেহেল ১/৬৮)

ফল: দক্ষিণ আফ্রিকা ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে ৫ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: হাইনরিখ ক্লাসেন

 

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট