‘ভালো গল্প ও চরিত্র পেলে দর্শক নতুন চলচ্চিত্রে দেখতে পাবে’

‘ভালো গল্প ও চরিত্র পেলে দর্শক নতুন চলচ্চিত্রে দেখতে পাবে’

প্রথমবারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাচ্ছেন দু’পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী রুনা খান। ২০১৭ সালে ‘হালদা’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী হিসেবে তার নাম ঘোষণা করা হয়েছে। এ নিয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত তিনি।

তার ভাষ্য, আমার মুক্তিপ্রাপ্ত প্রথম চলচ্চিত্র ‘হালদা’। প্রথম ছবিতেই এভাবে সম্মানিত হচ্ছি জেনে আমি খুব আনন্দিত। নিজেকে আমি একজন ছোট শিল্পী ভাবি। সেখান থেকে এ অর্জন আমার জন্য বড় প্রাপ্তি। তবে আমি বরাবরই কাজের সময় বোঝার চেষ্টা করি, নির্মাতা আমার কাছে কি প্রত্যাশা করছেন।

এ ছাড়া চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ক্ষেত্রে আমি একটু হিসেবী। আগামীতেও এভাবে ভালো চলচ্চিত্রে কাজ করবো। এ অভিনেত্রীর সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র হলো ‘সাপলুডু’। এটিতে তিনি অতিথি চরিত্রে অভিনয় করেন। তার স্বল্প সময়ের উপস্থিতিও দর্শকের মধ্যে সাড়া ফেলে। এ অভিনেত্রীর ‘কালো মেঘের ভেলা’, ‘ছিটকিনি’ ও ‘গহিন বালুচর’ চলচ্চিত্রগুলোও প্রশংসিত হয়। নতুন চলচ্চিত্রের খবর কি?

রুনা বলেন, এখন টিভি নাটকে ব্যস্ত সময় পার করছি। হাতে নতুন কোনো চলচ্চিত্র নেই। ভালো গল্প ও চরিত্র পেলে দর্শক নতুন চলচ্চিত্রে দেখতে পাবে। আমি নিজেও তার জন্য অপেক্ষায় আছি। এ অভিনেত্রী বর্তমানে ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’, ‘শিউলিমালা’ ও ‘বিষয়টি পারিবারিক’সহ বেশ কিছু ধারাবাহিকসহ খণ্ড নাটক নিয়ে ব্যস্ত আছেন বলে জানান।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ