ভুল বোঝাবুঝি এড়িয়ে চলুন…

ভুল বোঝাবুঝি এড়িয়ে চলুন…

দুজন মানুষ যখন সম্পর্কে জড়িয়ে যান তখন দুজনের মধ্যে অনেক ব্যাপার রয়েছে যা একে অপরের সাথে কথা বলে ঠিক করে নেওয়া উচিৎ। তা নাহলে সম্পর্কে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয় যা সম্পর্কে টানাপোড়ন আনে। অনেক সময় সামান্য ভুল বোঝাবুঝির কারণেই সম্পর্কে ভাঙন চলে আসতে পারে। সঙ্গীকে অযথা কোনো ব্যাপারে মানসিক চাপে ফেলার মতো বড় অনেক ভুল রয়েছে যা সম্পর্কে ভুল বোঝাবুঝির সূচনা ঘটায়। এতে সম্পর্কের মধুরতা একেবারেই নষ্ট হয়ে যায়। এর থেকেই সম্পর্ক নষ্টের পথে চলে যায়।

সন্দেহটাকেই সঠিক বলে ধরে নেওয়া: অনেক সময় নানা কর্মকাণ্ডে হয়তো সঙ্গীর কোনো কাজে সন্দেহ জাগতেই পারে। কিন্তু সেই সন্দেহটাকে যাচাই বাছাই না করেই সঠিক বলে ধরে নেয়াটা অনেক বেশি ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়। কারণ হতে পারে আপনার সন্দেহটা একেবারেই অমূলক। তাই অযথা কোনো ব্যাপারে সন্দেহ করে নিয়ে নিজের সম্পর্কে ঝামেলার সৃষ্টি করবেন না।

কথা গুরুত্ব দিয়ে না শোনা: সঙ্গী যখন কোনো কথা বলেন তা সে যতোই তুচ্ছ হোক না কেন তা মনোযোগ সহকারে শোনা উচিৎ। নতুবা সম্পর্কে ভুল বোঝাবুঝি বৃদ্ধি পেয়ে যায়। আপনার সঙ্গী আপনাকে কোনো কথা বলতে চাচ্ছেন সেটা আপনার কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ না হলেও হতে পারে তার কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। তাই সঙ্গীর কথা একটু গুরুত্ব দিয়ে শুনুন।

আলোচনা না করা: কোনো ব্যাপারে দুজনে আলোচনা না করে নেয়া সম্পর্কে ভুল বোঝাবোঝি সৃষ্টির বেশ বড় কারণ। দুজনের মধ্যে যোগাযোগ ঠিকভাবে না হলে একে অপরের কথা পরিষ্কারভাবে বোঝা যায় না তখন আপনা আপনিই ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়। যদি কোনো কারণে ভুল বোঝাবুঝি হয়েও যায় তবে তা দূর করার ক্ষমতাও রাখে আলোচনা করে নেয়া।

আগে থেকে অনেক কিছু চিন্তা করে রাখা: সম্পর্কে ভুল বোঝাবুঝির শুরুই হয় আগে থেকে অনেক কিছু ভেবে রাখা শুরু করলে। আশা জিনিসটি এমন যে মানুষকে শুধুই কষ্ট দেয়। এবং সব চাইতে ঝামেলা হয় যখন এর থেকে ভুল বোঝাবুঝির সূচনা ঘটায়। সঙ্গী কোনো কিছু চিন্তা করে রাখলেন যা অপরজন একেবারেই বুঝতে পারলেন না। তখন দুজনের মধ্যে যে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয় তা সম্পর্কের মধুরতা একেবারেই নষ্ট করে দেয়।

মুড খুব বেশি মাত্রায় পরিবর্তন হওয়া: মানুষ সব সময় খুব ভালো মুডে এবং একই মুডে থাকেন না এটা সত্যি কথা। কিন্তু খুব দ্রুত এবং ঘন ঘন মুড পরিবর্তন হলে সম্পর্কে ভুল বোঝাবোঝির মাত্রা বেড়ে যায়। সঙ্গী ধরতেই পারেন না আপনার মুড কখন এবং কেন পরিবর্তন হয়ে গেল। এখানে সঙ্গীর ওপর মানসিক চাপ পড়ে যায়, যার ফলে সঙ্গীর প্রতি বিতৃষ্ণা চলে আসে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট