ভোজ্যতেলে ভিটামিন এ নিশ্চিতে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম

ভোজ্যতেলে ভিটামিন এ নিশ্চিতে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম

 

ভোজ্যতেলে ভিটামিন এ নিশ্চিত করতে রিফাইনারি প্রতিষ্ঠানের মালিকদের ২৪ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। এই সময়ের মধ্যে কোনো ভোজ্যতেল রিফাইনারি প্রতিষ্ঠান তা করতে ব্যর্থ হলে সেটি বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে জানান মন্ত্রী।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর হোটেল পূর্বানীতে ‘বাংলাদেশে ভোজ্যতেলে বাধ্যতামূলক ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধকরণ কর্মসূচির আইন তদারকি বাস্তবায়ন’ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আমির হোসেন আমু এ সময় দেন।

শিল্পমন্ত্রী জানান, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে যেসব কোম্পানি ভোজ্যতেল ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ করবে না, সেসব কোম্পানির নাম পত্রিকা ও টেলিভিশনে বিজ্ঞপ্তি আকারে প্রকাশ করা হবে। মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলার কার্যক্রম চলবে না।

তিনি জানান, ভোজ্যতেলে ভিটামিন-এ সমৃদ্ধকরণ আইন, ২০১৩ বাস্তবায়নে শিল্প মন্ত্রণালয়  বিষয়ে স্বরাষ্ট্র ও খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ চলছে। পুরো রমজান মাসে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার জন্য ইতোমধ্যে বিএসটিআইকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আমির হোসেন আমু আরো জানান, ‘জাতীয় স্বার্থে এটা বাস্তবায়ন করতে হবে। বিশেষ করে শিশুদের স্বাস্থ্যগতভাবে বেড়ে ওঠার জন্য ‘এ’ ভিটামিন গুরুত্বপূর্ণ। আর এ আইন আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। তাই এ আইন বাস্তবায়নে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

ভোজ্যতেল ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ করতে দেশের মান নিয়ন্ত্রণকারী একমাত্র প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশনের (বিএসটিআই) নেতৃত্বে মোবাইল কোর্ট বের হবে। সারা বছরই এর কার্যক্রম চলবে বলে জানান শিল্পমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, গত বছরের ডিসেম্বরেও বাজারের সব সাধারণ ভোজ্যতেল ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ করতে ব্যবসায়ীদের ৭২ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছিলেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

এই কর্মশালায় দেশের প্রায় ৩৫টি ভোজ্যতেল শোধনকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা অংশ নিয়েছেন। এতে আলোচকরা জানান, ২০১১-১২ অর্থবছরের জরিপে দেখা গেছে, দেশে প্রতি ৫ জনের মধ্যে একজন শিশুর ভিটামিন-‘এ’ এর ঘাটতি রয়েছে।

কর্মশালায় অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন শিল্প সচিব মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, বিএসটিআইয়ের মহাপরিচালক একরামুল হক, বাংলাদেশ ভোজ্যতেল সমৃদ্ধকরণ প্রকল্পের পরিচালক মো. লুৎফুর রহমান তরফদার, নেদারল্যান্ড দুতাবাসের ফার্স্ট সেক্রেটারি লরেন্ট ইউমানস প্রমুখ।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক