মাদক নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত অভিযান চলবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মাদক নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত অভিযান চলবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘দেশে মাদক নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযান চলবে। এতে কোনো সন্ত্রাসী গোষ্ঠী কিংবা জঙ্গিগোষ্ঠীর হামলায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর মনোবল ভাঙবে না। তারা আরও বেশি চাঙ্গা হবে।’

শনিবার ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন চট্টগ্রামে মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে আহত র‍্যাবের ৩ সদস্যকে দেখতে গিয়ে এসব কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ১১ অক্টোবর চট্টগ্রামে যে ঘটনাটা ঘটেছে, এটা র‌্যাব বাহিনীর নিয়মিত চেক পোস্ট সেখানে ছিল। সে চেক পোস্টে এসব কর্তব্যরত অফিসাররা যখন ছিলেন, ঠিক সেই সময় এক সন্ত্রাসী সেখান দিয়ে যাচ্ছিল, তাকে সিগন্যাল দেওয়া হলে সে সিগন্যাল অমান্য করে গাড়ি থামিয়ে গুলি শুরু করে। এতে আমাদের চারজন সদস্য আহত হয়। তারা হলেন স্কোয়াড লিডার সাফায়াত জামিল ফাহিম, মেজর মেহেদী হাসান, ল্যান্স করপোরাল মো. শহীদুল ইসলাম এবং সৈনিক ফারুক হোসেন। এরা সবাই সেখানে দায়িত্ব পালনকালে গুলিবিদ্ধ হন। তাদের মধ্যে সাফায়াত জামিল চট্টগ্রামের সিএমইএচে চিকিৎসাধীন আছেন, বাকি তিনজন ঢাকা সিএমএইচ-এ চিকিৎসাধীন আছেন। তারা সকলেই আশঙ্কামুক্ত।

তিনি আরও বলেন, র‍্যাবের অভিযান পরিচালনা করতে গিয়ে যে ৪ জন সদস্য আহত হয়েছে এটা একটি দুর্ঘটনা আর এর কারণে র‍্যাবের মনোবলের কোনো পরিবর্তন আসেনি, তারা যথেষ্ট চাঙ্গা রয়েছে এবং এই অভিযান অব্যাহত রাখবে। বাংলাদেশে নিরাপত্তার প্রতীক র‌্যাব জঙ্গি এবং মাদক নির্মূলে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে বলে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে গুলিবিনিময়ের ঘটনা ঘটে। র‍্যাবকে জঙ্গি ও মাদক নির্মূলসহ যেখানেই দায়িত্বে দাওয়া হয়েছে সেখানে তারা সফলতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা ইতোমধ্যেই হামলাকারীদের চিহ্নিত করতে পেরেছি। এদের মধ্যে নিহত ব্যক্তি শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী এবং বাকিদের চিহ্নিত করতে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এ সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে ছিলেন, র‌্যাবের ডিজি বেনজির আহমেদ, র‌্যাবের মিডিয়া কর্মকর্তা মুফতি হান্নান, মিজানুর রহমান মিজানসহ বিভিন্ন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট