মানুষ এখন ভয়-ভীতি-শঙ্কার মধ্যে দিনাতিপাত করছে- খালেদা জিয়া

মানুষ এখন ভয়-ভীতি-শঙ্কার মধ্যে দিনাতিপাত করছে- খালেদা জিয়া

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রবের উত্তরার বাসায় অনুষ্ঠিত বৈঠকে পুলিশি বাধার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন খালেদা জিয়া। শনিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বিএনপি চেয়ারপারসন এই নিন্দা জানান।

বিবৃতিতে খালেদা জিয়া বলেন, ‘সরকারি মদদে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো এখন বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। বিরোধী দল ও বিরোধী মত দমন করতে পুলিশকে লাগামহীন লাইসেন্স দেওয়ার কারণেই সামাজিক অপরাধগুলো প্রশ্রয় পাচ্ছে। অনাচার বৃদ্ধির কারণেই মানুষ এখন ভয়-ভীতি-শঙ্কার মধ্যে দিনাতিপাত করছে।’

অশুভ উদ্দেশেই দেশের বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ আ স ম আব্দুর রবের বাসায় পুলিশ প্রবেশ করেছে উল্লেখ করে বিএনপি নেত্রী বলেন, ‘এর মূল লক্ষ্য হচ্ছে ভয়াবহ আতঙ্ক সৃষ্টি করা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় নিরঙ্কুশ ক্ষমতার অধিকারী থাকার জন্য বর্তমান সরকার যাদের প্রতিপক্ষ মনে করে তাদের নির্মূল করতে নানা পন্থা অবলম্বন করেছে। তারই অংশ হিসেবে রবের বাসায় বৈঠক না করতে পুলিশকে ব্যবহার করা হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার রবের বাসায় দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা ও নাগরিক সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে একটি বৈঠক হয়। তখন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা হয়ে সেখানে উপস্থিতি হয়ে অতিদ্রুত সভা সমাপ্তির তাগিদ দেন। পরে তারা বাসার সামনেও অবস্থান নেন।

অপর এক বিবৃতিতে, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও এই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘দেশে এখন দুঃশাসন চলছে। এই কারণেই রাষ্ট্র ও সমাজে বিরাজমান রয়েছে চরম অস্থিরতা। মানুষের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা পুরোপুরি কেড়ে নিয়ে তুঘলকি রাজত্ব বলবৎ করা হয়েছে।’ এসময় তিনি অবিলম্বে সরকারকে এ ধরণের ন্যাক্কারজনক আচরণ থেকে সরে আসার আহ্বান জানান।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক