মুস্তাফিজ বাহিনী ফাইনালের আশা জাগিয়ে রাখল, সাকিবদের বিদায়

মুস্তাফিজ বাহিনী ফাইনালের আশা জাগিয়ে রাখল, সাকিবদের বিদায়

আইপিএল-এর এলিমিনেটর ম্যাচে দিল্লীর ফিরোজ শাহ কোটলায় কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে ২২ রানের সহজ জয় পেলো সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ।

হায়দ্রাবাদের দেয়া ১৬৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে হায়দ্রাবাদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে মাত্র ১৪০ রানেই থামতে হয় কলকাতাকে।

শুরুতে নেমে দলের অধিনায়ক গৌতম গাম্ভির ২টি চার ও একটি ছয় মেরে ২৮ রান করে বেন কাটিংয়ের বলে ধরাশায়ী হয়ে মাঠ ত্যাগ করেন।

চারে নেমে মানিশ পান্ডে ২টি চার ও ১টি ছয় মেরে ৩৬ রান করে ভুবেনশ্বর কুমারের বলে দীপক হুদার হাতে ধরা পড়ে সাজঘরে ফিরেন।

পাঁচ নম্বরে নেমে সুরেকুমার যাদব ১৫ বলে ১টি ছয় ও ১টি চার মেরে ২৩ রান করে মইসেস হেনরিকসের বলে শিখর ধাওয়ানের হাতে মাঠ ত্যাগ করেন।

এছাড়া ভারতের রবিন উথাপ্পা করেছেন ১১ রান ও নিউজিল্যান্ডের কলিন মুনরো করেছেন ১৬ রান। তাছাড়া কলকাতার হয়ে আর কেউই দুই ঘরের অঙ্ক ছুঁতে পারেননি।

হায়দ্রাবাদের হয়ে সবচেয়ে বেশী উইকেট শিকার করেছেন ভুবেনশ্বর কুমার। ৪ ওভার অল করে মাত্র ১৯ রান দিয়ে তিনি তিনটি দুর্দান্ত উইকেট শিকার করেন।

অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার মইসেস হেনরিকস দুইটি উইকেট নিয়েছেন। এছাড়া বারিন্দার স্রান ও বেন কাটিং একটি করে উইকেট নিয়েছেন।

এর আগে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে যুবরাজ সিং, মইসেস হেনরিকসের ব্যাটে ভর করে ১৬২ রান সংগ্রহ করে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ।

ওপেনিংয়ে নেমে দলের অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার ৩টি চার মেরে ২৮ রান করে কুলদিপ যাদবের বলে বোল্ড আউট হয়ে মাঠ ছাড়েন।

অলরাউন্ডার মইসেস হেনরিকস ২১ বলে ১টি চার ও ২টি ছয়ের সাহায্যে ৩১ রান করে কুলদিপ যাদবের বলেই ধরাশায়ী হন।

হায়দ্রাবাদের হয়ে সবচেয়ে বেশী রানের ইনিংসটি খেলেন যুবরাজ সিং। ৩০ বলে ৮টি চার ও ১টি ছয়ের সাহায্যে ৪৪ রান করে জ্যাসন হোল্ডারের বলে বোল্ড আউট হয়ে মাঠ ত্যাগ করেন তিনি।

পাঁচে নেমে দীপক হুদা ১৩ বলে ২টি ছয় হাঁকিয়ে রান আউটের শিকার হন। এছাড়া দলের হয়ে আর কেউই উল্লেখযোগ্য রান সংগ্রহ করতে পারেননি।

কলকাতার হয়ে সবচেয়ে বেশী তিনটি উইকেট শিকার করেছেন বাঁহাতি স্পিনার কুলদিপ যাদব। এছাড়া দক্ষিন আফ্রিকান ডানহাতি পেসার মরনে মরকেল ও ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার জেসন হোল্ডার ২টি করে উইকেট নিয়েছেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট