মেসি-রোকুজ্জোর মধুচন্দ্রিমায় সুয়ারেজের চমক !

মেসি-রোকুজ্জোর মধুচন্দ্রিমায় সুয়ারেজের চমক !

 

একই ক্লাবের হয়ে খেলেন দুজন। তবে শুধু সতীর্থই নয়; লিওনেল মেসি ও লুইস সুয়ারেজ ভালো বন্ধুও। ছোটবেলার বান্ধবী আন্তনেলা রোকুজ্জোকে বিয়ে করার পরপরই মধুচন্দ্রিমায় গেছেন মেসি। সুযোগ পেয়েই ক্যারিবিয়ান দ্বীপে বন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গেলেন সুয়ারেজ। উরুগুয়ে ফরোয়ার্ডের হঠাৎ উপস্থিতিতে বিস্মিত হয়েছেন খোদ কিং লিও।

 গত ৩০ জুন আর্জেন্টিনার রোজারিও শহরে রোকুজ্জোকে বিয়ে করেন মেসি। সুয়ারেজ, জেরার্ড পিকে এবং নেইমারসহ বার্সেলোনার বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় সেই বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। মধুচন্দ্রিমায় ক্যারিবিয়ান দ্বীপ এন্টিগুয়ায় সূর্য, সাগর এবং বালুকারাশিতে পরিবার নিয়ে দারুণ সময় পার করছেন মেসি।

Visita sorpresa a @luissuarez9 @sofibalbi #thiaguimatubenjadelfi @antoroccuzzo88 ??

A post shared by Leo Messi (@leomessi) on

মধুচন্দ্রিমায় চার বছর বয়সী ছেলে থিয়াগো এবং এক বছর বয়সী ছেলে মাতেওকে সঙ্গে নেন মেসি ও রোকুজ্জো। এই চারজনের সঙ্গে আরো চারজন যোগ দেয়ায় মেসির আনন্দ যেন আরো বেড়ে যায়।

মেসির স্ত্রী আন্তনেলার সঙ্গে সুয়ারেজের বান্ধবী সোফিয়া বালবির সম্পর্ক এককথায় অসাধারণ। এমনকি দুজনে বার্সেলোনায় একসঙ্গে ব্যবসায়ও নেমেছেন। মধুচন্দ্রিমায় তাই আন্তেনেলাকে সময় দিতে ভুল করেননি সোফিয়া।

ক্যারিবিয়ান দ্বীপে শনিবার মেসির পরিবারের সঙ্গে বান্ধবী সোফিয়াকে নিয়ে যোগ দেন সুয়ারেজ। সঙ্গে ছিল এই জুটির দুই সন্তান- ছয় বয়সী বয়সী ডেলফিনা এবং তিন বছর বয়সী বেঞ্জামিন।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে দুই পরিবারের একটি ছবি পোস্ট করেন মেসি। ক্যারিবিয়ান দ্বীপে সুয়ারেজের পরিবারের সঙ্গে তোলা সেই ছবির ক্যাপশনে কিং লিও লেখেন, ‘সারপ্রাইজ ভ্রমণ।’

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট