যুদ্ধক্ষেত্র প্যারিস: পুলিশ-বিক্ষোভকারী সংঘর্ষ, লুটপাট ভাংচুর

যুদ্ধক্ষেত্র প্যারিস: পুলিশ-বিক্ষোভকারী সংঘর্ষ, লুটপাট ভাংচুর

‘হলুদ জ্যাকেটধারীদের’ বিক্ষোভ এবং পুলিশের সঙ্গে বড় রকমের সংঘর্ষের ফলে যুদ্ধক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিস। ফ্রান্সে জীবনযাত্রার খরচ বেড়ে যাওয়া এবং জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর পরিকল্পনার প্রতিবাদে চার সপ্তাহ আগে দেশটিতে এ বিক্ষোভ শুরু হয়।

শনিবার বিক্ষোভের সময় বহুসংখ্যক গাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে এবং দোকানপাট লুট করা হয়েছে। বিক্ষোভ মোকাবেলায় পুলিশ ব্যাপকমাত্রায় টিয়ারগ্যাস ছোঁড়ে এবং তিনশ’র বেশি মানুষ আটক করে।

আজকের বিক্ষোভ মোকাবেলার জন্য সারা দেশে ৮৯ হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়। এর মধ্যে শুধু রাজধানী প্যারিসেই মোতায়েন করা হয় আট হাজার পুলিশ। বিক্ষোভকারীরা আগেই বিক্ষোভের ঘোষণা দিয়েছিল ফলে রাজধানী প্যারিসের যাদুঘর, ডিপার্টমেন্টাল স্টোর এবং মেট্রো বন্ধ করে রাখা হয়। ফলে প্যারিস এক রকমের ভুঁতুড়ে শহরে পরিণত হয়েছে।

শনিবারের বিক্ষোভ মোকাবেলার বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টোফ ক্যাসনার ‘জিরো টলারেন্স’র কথা বলেছিলেন। প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন ক্ষমতায় আসার দেড় বছরের মধ্যে এই প্রথম এত বড় বিক্ষোভ মোকাবেলা করছেন। চলতি সপ্তাহের প্রথম দিকে তিনি জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিতে পারেন।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট