যেভাবে জানা যাবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল

যেভাবে জানা যাবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল

আজ প্রকাশিত হলো মাধ্যমিক স্কুল সাটিফিকেট (এসএসসি), দাখিল এবং সমমানের পরীক্ষা ২০১৮’র ফল। গত ১ ফেব্রুয়ারি এ পরীক্ষা শুরু হয়ে শেষ হয় ২৫ মার্চ।

আজ সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে গণভবনে এ ফলাফল হস্তান্তর করেন শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ। এবার ১০ শিক্ষা বোর্ডে গড়ে পাসের হার ৭৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ১০ হাজার ৬২৯ জন। এবারের পাসের হার গত বছর থেকে কম। গত বছর পাসের হার ছিল ৮০ দশমিক ৩৫ শতাংশ।

রেওয়াজ অনুযায়ী, বিভিন্ন শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফলের সারসংক্ষেপ হস্তান্তর করেন। দুপুর ২টা থেকে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার ফলাফল জানতে পারবে।

দুপুর সাড়ে ১২টায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ করবেন। বেলা ১টায় শিক্ষা বোর্ডগুলোর নিজস্ব ওয়েবসাইটে ফলাফলের কপি উন্মুক্ত করা হবে। একই সময় শিক্ষা বোর্ডগুলো তাদের অধীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফলাফলের কপি নিজ নিজ ওয়েবসাইটে উন্মুক্ত করা হবে। মোবাইল ফোনের সেবা প্রদানকারী কোম্পানিগুলোও এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানাতে শুরু করবে এর পরপরই।

এসএসসি ও সমমানের ফল জানতে যেকোন মোবাইলের মেসেজ অপসনে গিয়ে এসএসসি লিখে বোর্ডের প্রথম তিনটি অক্ষর টাইপ করে রোল নম্বর ও সাল লিখে ১৬২২২ তে পাঠাতে হবে। ফিরতি মেসেজেই ফল জানা যাবে। উদাহরণ massage option-SSS<DHA> <Roll no> <2018> send 16222 এ করুন। এর জন্য চার্জ প্রযোজ্য ২.৪৪ টাকা।

এ ছাড়া শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট http://www.educationboardresults.gov.bd থেকেও পরীক্ষার্থীরা ফল জানতে পারবেন।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে www.educationboardresults.gov.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে ফল ডাউনলোড করতে হবে। বোর্ড থেকে ফলাফলের কোনো মুদ্রিত কপি সরবরাহ করা হবে না। তবে বিশেষ প্রয়োজনে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দফতর থেকে ফলাফলের মুদ্রিত কপি সংগ্রহ করা যাবে বলে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটি সূত্রে জানা গেছে।

আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মুহাম্মদ জিয়াউল হক গতকাল বিকেলে বলেন, আগের নিয়মেই পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর এবার বরিশাল ও বান্দরবান জেলার শিক্ষার্থীদের জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রতীকী ফল প্রকাশ করবেন।

আটটি সাধারণ বোর্ড এবং মাদরাসা ও কারিগরি বোর্ড মিলে এবার মোট ২০ লাখ ৩১ হাজার ৮৯৯ জন পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে আট বোর্ডের অধীনে এসএসসিতে ১৬ লাখ ২৭ হাজার ৩৭৮ জন, মাদরাসা বোর্ডের অধীনে দাখিলে দুই লাখ ৮৯ হাজার ৭৫২ ও এসএসসি ভোকেশনালে (কারিগরি) এক লাখ ১৪ হাজার ৭৬৯ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে।

ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন আগামীকাল থেকে :

প্রকাশিত ফলে কোনো পরীক্ষার্থী সংক্ষুব্ধ হলে ফলাফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করতে পারবে। এ জন্য টেলিটক থেকে আগামীকাল ৭ মে থেকে পরবর্তী এক সপ্তাহ পর্যন্ত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করা যাবে বলে গতকাল জানিয়েছেন আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মুহাম্মদ জিয়াউল হক।

ফল পুনঃনিরীণের আবেদন করতে RSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে বিষয় কোড লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে ফি বাবদ কত টাকা কেটে নেয়া হবে তা জানিয়ে একটি পিন নম্বর (পার্সোনাল আইডেন্টিফিকেশন নম্বর) দেয়া হবে।

আবেদনে সম্মত থাকলে RSC লিখে স্পেস দিয়ে ণঊঝ লিখে স্পেস দিয়ে পিন নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে যোগাযোগের জন্য একটি মোবাইল নম্বর লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে।

প্রতিটি বিষয় ও প্রতি পত্রের জন্য ১২৫ টাকা হারে চার্জ কাটা হবে। যে সব বিষয়ের দুইটি পত্র (প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র) রয়েছে, যেসব বিষয়ের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করলে দুইটি পত্রের জন্য মোট ২৫০ টাকা ফি কাটা হবে। একই এসএমএসে একাধিক বিষয়ের আবেদন করা যাবে, এ ক্ষেত্রে বিষয় কোড পর্যায়ক্রমে ‘কমা’ দিয়ে লিখতে হবে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট