যে বলি তারকাদের নিজস্ব প্রোডাকশন হাউস রয়েছে

যে বলি তারকাদের নিজস্ব প্রোডাকশন হাউস রয়েছে

অভিনয় নয়, ছবি প্রযোজনার কাজেও সমান পটু এই বলি তারকারা। অনেকের তো আবার নিজস্ব প্রোডাকশন হাউসও রয়েছে। গ্যালারির পাতায় দেখে নিন সেই তারকাদের নাম ও তাঁদের প্রোডাকশন হাউসের খুঁটিনাটি।

pro

সইফ আলি খান: অভিনয়ের পাশাপাশি অনেক কাজেই দক্ষ বি-টাউনের ছোটে নবাব। ‘ইলুমিনাটি ফিল্মস’ নামে মুম্বইতে তাঁর নিজস্ব প্রোডাকশন হাউস রয়েছে। সইফ আলি খান এবং পরিচালক দীনেশ ভিজানের যৌথ উদ্যোগে ২০০৯ সালে এই প্রোডাকশন হাউসটি তৈরি হয়। ‘ইলুমিনাটি ফিল্মস’ থেকে প্রথম মুক্তি পায় সইফ অভিনীত বক্স-অফিস হিট ছবি ‘লভ আজ কাল’।

pro

জন আব্রাহাম: মুম্বইতে জন আব্রাহামের প্রোডাকশন হাউসের নাম ‘জেএ এন্টারটেইনমেন্ট’। ২০০৮ সালে তৈরি হয়েছে ‘জেএ এন্টারটেইনমেন্ট’। ‘ভিকি ডোনর’ এবং ‘মাদ্রাজ কাফে’-র মতো ছবি মুক্তি পেয়েছে এই প্রোডাকশন হাউস থেকে।

pro

আমির খান: ১৯৯৯ সালে মুম্বইতে নিজের প্রোডাকশন হাউস খোলেন ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’। ‘আমির খান প্রোডাকশন (একেপি)’-এর তৈরি প্রথম বড় ছবি ‘লগান’। আমিরের স্ত্রী কিরণ রাও এই প্রোডাকশন হাউসে সহ-পরিচালকের পদে রয়েছেন। তাঁর পরিচালনায় একেপি থেকে ২০০৭ সালে ‘তারে জমিন পর’ এবং ২০০৮ সালে ‘জানে তু ইয়া জানে না’ বক্স-অফিসে সাফল্য পেয়েছে।

pro

অজয় দেবগন: অভিনয়ের সঙ্গে সঙ্গে অজয়ের প্রথম প্রযোজনার জগতে পা রাখা ২০০০ সালে। ‘অজয় দেবগন ফিল্মস’ (এডিএফ) নামে মুম্বইতে নিজের প্রোডাকশন হাউসও খুলেছেন তিনি। এডিএফ থেকে অজয়ের প্রযোজনায় প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘রাজু চাচা’।

pro

অক্ষয় কুমার: বি-টাউনের মাল্টি ট্যালেন্টেড অভিনেতা অক্ষয়ের প্রোডাকশন হাউসের নাম ‘হরি ওম প্রোডাকশনস’। ২০০৮ সালে মা অরুণা ভাটিয়া এবং স্ত্রী টুইঙ্কল খন্নার উদ্যোগে এই প্রোডাকশনহাউসটি তৈরি করেন অক্ষয়। ‘সিং ইজ কিং’, ‘খাট্টা মিঠা’, ‘অ্যাকশন রিপ্লে’, ‘প্যাডম্যান’-সহ অনেক হিট ছবিই মুক্তি পেয়েছে এই প্রোডাকশন হাউস থেকে।

pro

অমিতাভ বচ্চন: ছবি পরিচালনার কাজে বারে বারেই মুখ থুবড়ে পড়েছে অমিতাভ বচ্চনের প্রোডাকশন হাউস ‘অমিতাভ বচ্চন করপোরেশন লিমিটেড’ (এবিসিএল)। ছবি প্রোডাকশনের পাশাপাশি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের কাজও করে এবিসিএল। মোট ১০টি বলিউড ছবি মুক্তি পেয়েছে এবিসিএল থেকে, কিন্ত কোনওটাই বক্স-অফিসে তেমন চলেনি।

pro

সলমন খান: সলমনের নিজস্ব প্রোডাকশন হাউস ‘সলমন খান ফিল্মস’ (এসকেএফ) থেকে মোট ৪টি ছবি মুক্তি পেয়েছে। কিন্তু কোনওটাই বক্স-অফিসে তেমন সাফল্যের মুখ দেখেনি।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট