যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার যোগ্যতা ফেল করা!

যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার যোগ্যতা ফেল করা!

ক্লাসে প্রথম হওয়ার ইঁদুর দৌড়ে সব বাবা-মা সামিল করতে চান ছেলে মেয়েকে। কারণ একটাই, জীবনে প্রতিষ্ঠিত হওয়া। কিন্তু জানেন কি জীবনে অকৃতকার্য হয়েও যুক্তরাষ্ট্রের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়া যায়৷ আশ্চর্য্যের বিষয় এটাই, শুধুমাত্র জীবনে অকৃতকার্য হলে তবেই ভর্তি হতে পারবেন এই বিশ্ববিদ্যালয়ে। সে পড়াশুনায় হোক সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার বিষয়ে হোক বা খেলার মাঠে হেরে যাওয়া।জীবনে কোনও এক মুহুর্তে যদি আপনি হেরে গিয়ে থাকেন তাহলেই আমেরিকার স্মিথ কলেজে মেসাচুসেটস ইউনিভার্সিটির সহযোগে এই কোর্সে ভর্তি হয়ে যেতে পারেন। স্মিথ কলেজ একটা বিশেষ কোর্স চালু করেছে। যার নাম রাখা হয়েছে ‘ফেলিং বেল’।  কোর্সটা শুধুমাত্র তাদের জন্যই যাঁরা জীবনের কোনও এক পদক্ষেপে অসফল হয়েছেন। ভবিষ্যতে কি করবেন তা নিয়ে চিন্তিত। জীবনের পথে এগিয়ে যাওয়ার সাহস হারিয়ে ফেলেছেন। এই কোর্সে তাঁদের শেখানো হয় ফেল করার কিছু লাভও আছে। কিভাবে অন্তরের দ্বন্দ্বের সঙ্গে বুঝতে হয়। কিভাবে এগিয়ে যেতে হয়। আপনার বয়স যাই হোক না কেন, জীবনের যে পদক্ষেপেই আপনি যেভাবেই অসফল হোন না কেন, সে শিক্ষায় অনুত্তীর্ণ হোক, পরিবারে অসফলতা হোক, একান্ত ব্যক্তিগত কোনও অসফলতা, সম্পর্কের অসফলতা হোক বা চাকরি জীবনে পেশাগত অসফলতা। আপনি এই কলেজে ভর্তি হয়ে যেতে পারবেন।আপনাকে শুধু ওই কলেজে গিয়ে বলতে হবে কোথায় আপনি অকৃতকার্য হয়েছেন। শিক্ষায়, পেশায় নাকি কোনও অন্য বিষয়ে। কলেজ আপনাকে ভর্তি করিয়ে নেবে। এরপর আপনার ফেলিং বেল কোর্স শুরু হবে। কলেজ আপনাকে বলে দেবে ঠিক কিভাবে এগিয়ে যেতে হবে। কিভাবে সেই অসফলতা থেকে আপনি নিজেকে বের করে আনবেন। কলেজে ভর্তি হওয়ার পর ছাত্রছাত্রীকে ফেল হওয়ার সার্টিফিকেট দেওয়া হয়। তারপর তাকে উৎসাহিত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়। এই রকম একটি আশ্চর্য কোর্স এখন চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে। আর অবাক করা বিষয় হল দিন দিন এই কলেজে ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এবার জীবনে ফেল করে গেলে চিন্তা করবেন না। হতাশ হবেন না।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট