রাতে ফল খাওয়ার অনেক উপকার

রাতে ফল খাওয়ার অনেক উপকার

 

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন, যাঁদের অভ্যাস তাড়াতাড়ি ডিনার সেরে ফেলা। ফলত, মাঝরাতে খিদের চোটে কারোর কারোর ঘুম ভেঙে যায়। বেশি রাতে হাতের কাছে যাই থাকে, সেটাই খেয়ে আবার শুয়ে পড়া। অধিকাংশ ক্ষেত্রে চকোলেট, কুকিজ, ফ্রুট কেকের টুকরো, মিষ্টি বা চিপস্ হয়ে ওঠে খিদে মেটানোর উপায়। এতে ওজনবৃদ্ধির সম্ভাবনা তৈরি হয়। যাঁদের মোটা হওয়ার ধাঁচ, রোজ মাঝরাতে যদি হাই ক্যালোরিযুক্ত খাবার খেতে শুরু করেন, সমস্যা বাড়বে বই কমবে না। তাই ফল খাওয়াই সঠিক উপায় বলে মনে করেন চিকিৎসকেরা।

যেমন, তরমুজ বা খরমুজের মতো ফল। এগুলিতে ক্যালোরি নেই বললেই চলে। চটজলদি ওজন কমাতে হলে রাতে এই ধরনের ফল খেতে পারেন। ৪ কাপ ভর্তি তরমুজে রয়েছে মাত্র ১৮৪ ক্যালোরি।

রাতে খাওয়ার পক্ষে ভালো বেরি জাতীয় ফল। এদের মধ্যে যে কেবল ক্যালোরির পরিমাণ কম তাই নয়, বেরিতে ফাইবার ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস্ ভরপুর। ৪ কাপ স্ট্রবেরির টুকরোয় রয়েছে ১৯৬ ক্যালোরি। যাঁদের বেশি ফাইবার সহ্য হয় না, ১ কাপের বেশি খাবেন না। না হলে তলপেটে অস্বস্তি শুরু হতে পারে। বেরি খেলে জল খাওয়ার পরিমাণও বাড়াতে হবে আপনাকে।

আপেল ও পিয়ার্সের মতো ফল রাতে খেলে উপকার বেশি। এই ফলগুলি ওজন কমানোয় সহায়ক। শুধু তাই নয়, এই জাতীয় ফল খেলে ত্বকের মান বাড়ে, ত্বক থেকে টক্সিন দূর হয় সহজেই। একটি মাঝারি আকারের আপেল বা পিয়ার্সে রয়েছে ১০০ ক্যালোরি।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট