রাশিয়া বিশ্বকাপ অন্য সব আসরকে ছাড়িয়ে গেছে- ইনফান্তিনো

রাশিয়া বিশ্বকাপ অন্য সব আসরকে ছাড়িয়ে গেছে- ইনফান্তিনো

বিশ্বকাপের ইতিহাসে রাশিয়া বিশ্বকাপ সব আসরকে ছাড়িয়ে গেছে। শুরু থেকেই সফলভাবে সব কিছু আয়োজন করেছে আয়োজক রাশিয়া। ১৫ জুলাই ফাইনালের আগে মস্কোতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এমনটিই জানান ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো।

এবারের আসরে ভিডিও অ্যাসিসটেন্ট রেফারি প্রযুক্তি ব্যবহার করায় সব ধরণের বিতর্ক থেকে দূরে থাকা গেছে বলেও মত তার। এদিকে, রাশিয়া বিশ্বকাপ শেষ না হতেই কাতার বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে বলেও জানান তিনি।

৩২টি দল একরাশ স্বপ্ন নিয়ে গেল ১৪ জুন শুরু করেছিলো তাদের স্বপ্নযাত্রা। গ্রুপ পর্ব থেকে শুরু করে নক আউট পর্বসহ প্রতিটি ধাপেই নানা প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে ফাইনালে পা রেখেছে ফ্রান্স ও ক্রোয়েশিয়া। একেবারেই শেষ দিকে চলে এসেছে রাশিয়া বিশ্বকাপ। বিশ্ব ফুটবলের সবচেয়ে বড় মঞ্চের রোমাঞ্চ উপভোগ করতে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে রাশিয়ায় এসেছেন প্রায় এক মিলিয়ন ফুটবল সমর্থক।

১২টি ভেন্যুতে কোন ঝামেলা ছাড়াই খেলা উপভোগ করছেন তারা। সব শহরেই সমর্থকরা পেয়েছেন রাশিয়ানদের পক্ষ থেকে উষ্ণ অভ্যর্থনা। ২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপ সফলভাবে শেষ করতে বেশ বেগ হয়েছিলো আয়োজকদের।

তবে, এবার আয়োজক রাশিয়ার প্রশংসায় পঞ্চমুখ বর্তমান সভাপতি ইনফান্তিনো। ২০১৬ সালে ফিফা সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর এটিই তার প্রথম বিশ্বকাপ। আর প্রথম আয়োজন অন্য সব আসরকে ছাড়িয়ে গেছে বলে মনে করেন ইনফান্তিনো।

ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো বলেন, আমি আয়োজক রাশিয়া, ফুটবল ইউনিয়ন ও ভলান্টিয়ার থেকে শুরু করে যারা বিশ্বকাপ আয়োজনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তাদের সবাইকে ধন্যবাদ দিতে চাই। আমার মনে এ যাবতকালে যত বিশ্বকাপ হয়েছে তারমধ্যে এবারই সবচেয়ে সুন্দরভাবে সবকিছু হচ্ছে। তাই এটিকে সবচেয়ে সফল আয়োজন বললেও ভুল হবে না।

বিশ্বকাপে এবার ব্যবহার করা হয়েছে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি। এ প্রযুক্তি ব্যবহারে সঠিকভাবে সিদ্ধান্ত দেয়া গেছে বলেও মনে করেন তিনি। সে সঙ্গে বিশ্বকাপ আয়োজনে রাশিয়ায় ফুটবলের জোয়ার বয়ে গেছে বলেও জানান ইনফান্তিনো।

” এবার রাশিয়া বিশ্বকাপে ভিডিও অ্যাসিসটেন্ট রেফারি প্রযুক্তি ব্যবহার হচ্ছে। এতে করে ম্যাচের বিতর্কিত অনেক বিষয়ই এড়ানো গেছে কাতার বিশ্বকাপেও প্রযুক্তি রাখতে চাই আমরা। এছাড়া বিশ্বকাপ আয়োজন করায় রাশিয়ার ফুটবলে আমূল পরিবর্তন এসেছে। তৃনমূল থেকে অনেক ছেলে মেয়েই এখন ফুটবলের প্রতি আগ্রহী হচ্ছে।”

এছাড়া এরইমধ্যে কাতার বিশ্বকাপের জন্য জোর প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে বলে জানা ইনফান্তিনো।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট