রায় ঘিরে নাশকতার পরিকল্পনা হলে ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

রায় ঘিরে নাশকতার পরিকল্পনা হলে ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় ঘিরে কোনো নাশকতার পরিকল্পনা করা হলে কঠিন ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে জাতীয় উন্নয়ন মেলার স্টল পরিদর্শন করতে গিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় নিয়ে কোনো সংশয় নেই। রায় ঘিরে কোনো নাশকতার পরিকল্পনা করা হলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যেকোনো নাশকতা প্রতিরোধে আইনশৃংখলা বাহিনী প্রস্তুত আছে বলে জানান তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায় ১০ অক্টোবর ঘোষণা হবে আমরা আশা করছি। ১৫ই আগষ্ট বঙ্গবন্ধুকে স্ব-পরিবারে হত্যা করা হয়েছিল। ঠিক একই ধরণের বিভৎস হত্যাকাণ্ড যা আমরা আগে কোনও দিন লক্ষ্য করিনি, সেটা ২০০৪ সালের ২১ আগষ্ট দেখলাম। একের পর এক হত্যাকান্ডগুলো ঘটানো হয়েছে, সবগুলোর যোগসূত্র একই।’

‘এগুলোর সব পরিকল্পনা বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের শেষ সদস্যকে হত্যা করা। ২১ আগষ্ট মামলার রায় হতে যাচ্ছে। সেদিন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আহত হলেও আমরা আইভি রহমানসহ ২২ জনকে হারিয়েছি।’

বিচারক যে রায় দেবেন সেই রায় অবশ্যই কার্যকর হবে উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রন্ত্রী বলেন, ‘রায় ঘিরে কোনও কিছু হবে না। জনগণ এই রায়ের কার্যকরিতা দেখতে চায়। অনেকে মনে করছে শান্তি-শৃঙ্খলার অবনতি হবে কিন্তু আমি মনে করি এগুলো কোনও কিছুই হবে না। সাধারণ মানুষ জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ পছন্দ করে না। যারা এগুলো করে তাদেরকে ধিক্কার দেয় মানুষ। এই কারণে আমরা জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ কঠোর হস্তে নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়েছি।’

প্রসঙ্গত, ২০০৪ সালে বিএনপি জামায়াত ক্ষমতায় থাকাকালে ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে সমাবেশে নারকীয় গ্রেনেড হামলা হয়। এতে ২৪ জনের প্রাণহানি ঘটে। গুরুত্বর আহত হন তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই মামলার রায় শিগগিরই ঘোষণা করা হবে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট