রোনাল্ডোর ‘বাউন্সিং পেনাল্টি’ নিয়ে বিতর্ক(ভিডিও)

রোনাল্ডোর ‘বাউন্সিং পেনাল্টি’ নিয়ে বিতর্ক(ভিডিও)

ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো কি ফুটবল দুনিয়ায় নতুন এক শব্দের জন্ম দিলেন? বুধবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পিএসজির বিরুদ্ধে ম্যাচে সি আর সেভেনের নেওয়া পেনাল্টি দেখার পরে ছড়িয়ে পড়েছে শব্দটা ‘বাউন্সিং পেনাল্টি’।

রিয়াল মাদ্রিদ তখন ০-১ পিছিয়ে। হাফ টাইমের ঠিক মুখে পেনাল্টি পায় রিয়াল। স্বাভাবিক ভাবেই পেনাল্টি নিতে যান রোনাল্ডো এবং তাঁর জোরালো শট গোলকিপারের হাতের নাগাল এড়িয়ে গোলে ঢুকে যায়। বিতর্ক সেখানে নয়। বিতর্ক রোনাল্ডো কিক মারার আগের মুহূর্তে। কিক নেওয়ার আগে সেকেন্ডের ভগ্নাংশে দেখা যায় বলটা সামান্য শূন্যে ভেসে উঠেছে। ফলে পেনাল্টি কিক বদলে যায় ভলিতে।

এর পরেই তোলপাড় শুরু হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়া এবং প্রাক্তন ফুটবলারদের মধ্যে। ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ফুটবলার মাইকেল আওয়েন টুইট করেন, ‘আমার মনে হচ্ছে পেনাল্টি নেওয়ার সময় রোনাল্ডো বলটা দু’বার ছুঁয়েছে। রেফারির উচিত ছিল, পেনাল্টি বাতিল করে দেওয়া।’’ অভিযোগ উঠেছিল, পেনাল্টি নেওয়ার ঠিক আগের মুহূর্তে ‘নন কিকিং ফুট’ দিয়ে বলটা তুলে দেন রোনাল্ডো। তার পর জোরালো ভলিতে হার মানান গোলকিপারকে।

কিন্তু টিভি-র আলট্রা স্লো-মোশন রিপ্লেতে দেখা গিয়েছে, ঘটনাটা মোটেও সে রকম নয়। রোনাল্ডোর নন-কিকিং ফুট বলের একদম পাশে থাকলেও তা বল ছোঁয়নি। কিন্তু আলট্রা স্লো মোশনে এও দেখা গিয়েছে, বলটা সামান্য উঠেছে। এর পরেই প্রশ্ন উঠে যায়, কী করে এটা সম্ভব হল? আওয়েন আবার টুইট করেন, ‘ঘাস নড়ে যাওয়ায় কি বলটা উঠে গেল? আবার রিপ্লে দেখছি। কিন্তু একটা ব্যাপারে নিশ্চিত, বলটা স্পট থেকে উপরে উঠেছে।’

কী ভাবে এই অবিশ্বাস্য ব্যাপার সম্ভব হল, এই প্রশ্নে যখন ফুটবল দুনিয়া তোলপাড়, তখন ইংল্যান্ডের আর এক প্রাক্তন ফুটবলার রিও ফার্ডিনান্ড এর একটা ব্যাখ্যা দিয়েছেন। ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডে রোনাল্ডোর প্রাক্তন সতীর্থ জানালেন, এর পিছনে রয়েছে রোনাল্ডোরই কারসাজি এবং এই ধরনের পেনাল্টি কিক মারার কৌশল ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডে থাকার সময়ই শিখেছিলেন পর্তুগিজ মহাতারকা। ফার্ডিনান্ড বলেছেন, ‘‘বিশ্বাস করুন, পাগলামি মনে হলেও এটাই সত্যি। রোনাল্ডো নিজেই এটা করেছে। ম্যাঞ্চেস্টারে থাকার সময় ট্রেনিংয়ে ও এটা করত। আমি জানি না ম্যাচে রোনাল্ডো এটা ইচ্ছাকৃত ভাবে করেছে কি না, কিন্তু ঘটনা হল, ট্রেনিংয়ে ওকে আগেও এ রকম করতে দেখেছি।’’

ঠিক কী ভাবে ঘটল এই ঘটনা? বলা হচ্ছে, রোনাল্ডোর বাঁ পা যে গতিতে এসে বলের পাশে পড়েছে, তাতেই বল একটু লাফিয়ে উঠছে এবং তখনই ডান পায়ের দুরন্ত ভলি! প্রশ্ন আরও একটা উঠছে। তা হল, রোনাল্ডো দু’বার না ছুঁলেও বল কিন্তু নড়েছে এবং নিয়ম অনুযায়ী, পেনাল্টি নেওয়ার সময় বল একবার নড়ে গেলে সেই পেনাল্টি বাতিল বলে ধরতে হবে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের প্রাক্তন রেফারি গ্রাহাম পোল বলেছেন, ‘‘মানছি, রোনাল্ডো বলটা দু’বার ছোঁয়নি। কিন্তু বল নড়েছিল। ফলে পেনাল্টিটা বাতিল করা উচিত ছিল। তবে আমি রেফারিকে কোনও দোষ দেব না। কারণ কারও পক্ষেই ওই সামান্য মুভমেন্ট বোঝা সম্ভব নয়।’’

পেনাল্টি বৈধ না অবৈধ, সে বিতর্ক চলতেই থাকবে। যেমন বিতর্ক চলবে সত্যিই কি রোনাল্ডো ইচ্ছাকৃত ভাবে ও রকম পেনাল্টি নিয়েছেন? রোনাল্ডো নিজে মুখ না খোলা পর্যন্ত এই তর্কের মীমাংসা হবে না। তত দিন পর্যন্ত সম্ভবত ফুটবল পেয়ে গেল নতুন একটা শব্দ বাউন্সিং পেনাল্টি!

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট