শনিবার বিকেলনাগাত উপকূল অতিক্রম করতে পারে ‘রোয়ানু’

শনিবার বিকেলনাগাত উপকূল অতিক্রম করতে পারে ‘রোয়ানু’

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’ দ্রুত বেগে বাংলাদেশের উপকূলের দিকে ধেয়ে আসায় অভ্যন্তরীণ সব রুটে নৌযান চালাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে।

শুক্রবার বিকেলে এ তথ্য জানান বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যান এম মোজাম্মেল হক। বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যান জানান, পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ সব রুটে নৌযান চালাচল বন্ধ থাকবে।

এই দিকে এ ব্যাপারে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’ আগামীকাল শনিবার বিকেল বা সন্ধ্যা নাগাদ বাংলাদেশের চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীর উপকূল অতিক্রম করতে পারে। এজন্য চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরকে ৭ নম্বর, কক্সবাজার বন্দরকে ৬ নম্বর এবং মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৫ নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া বিভাগ।

জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ আবদুল মান্নান জানান, শুক্রবার বেলা ১২টায় ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ৯৬৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিম, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৪৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিম, পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৭৭৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিম এবং মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৮১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল।

সেই সময় ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটার, যা দমকা বা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৮৮ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছিল। এই ঝড় আরও উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে শনিবার বিকাল বা সন্ধ্যা নাগাদ চট্টগ্রাম-নোয়াখালী অঞ্চলের ওপর দিয়ে উপকূল অতিক্রম করতে পারে বলে ধারণা করছেন আবহাওয়াবিদরা।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক