শান্তি প্রতিষ্ঠা ‘পুরোপুরি’ ওয়াশিংটনের ওপর নির্ভর করছে: কিম

শান্তি প্রতিষ্ঠা ‘পুরোপুরি’ ওয়াশিংটনের ওপর নির্ভর করছে: কিম

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন বলেছেন, চলতি বছরের গোড়ার দিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে তার শীর্ষ বৈঠকে আমেরিকা বিশ্বাস ভঙ্গ করেছে। তিনি আরো বলেছেন, কোরীয় উপদ্বীপে শান্তি প্রতিষ্ঠার বিষয়টি ‘পুরোপুরি’ ওয়াশিংটনের ওপর নির্ভর করছে।

রাশিয়ার ভ্লাদিভস্তকে বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে এক বৈঠকে কিম এসব কথা বলেছেন বলে উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ আজ (শুক্রবার) জানিয়েছে। সাক্ষাতে উত্তর কোরিয়া সফরের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন প্রেসিডেন্ট পুতিন। উপযুক্ত একটি সময়ে এ সফর অনুষ্ঠিত হবে বলে কেসিএনএ জানায়।

কিম জং-উন পুতিনকে বলেছেন, কোরীয় উপদ্বীপের পরিস্থিতি এখন একটি সংকটময় অবস্থায় পৌঁছেছে। আমেরিকা সাম্প্রতিক শীর্ষ বৈঠকে বিশ্বাস ভঙ্গ করে আধিপত্যকামী মনোভাব দেখানোর কারণে এই পরিস্থিতি আগের অবস্থায় ফিরে যেতে পারে বলেও কিম সতর্ক করে দিয়েছেন।

আমেরিকা শান্তি আলোচনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছে বলে পিয়ংইয়ং অভিযোগ করার এক সপ্তাহ পর কিম জং-উন এ বক্তব্য দিলেন।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে কিম-ট্রাম্প শীর্ষ বৈঠকে দু’দেশের মধ্যকার সংলাপ ভেঙে যায়। ওই বৈঠকে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্রের ভবিষ্যত নির্ধারণে ব্যর্থ হন দুই নেতা। হ্যানয় বৈঠকে নিজের পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের বিনিময়ে তার দেশ থেকে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা পুরোপুরি তুলে নেয়ার দাবি জানান কিম জং-উন যা ডোনাল্ড ট্রাম্প মেনে নেননি।

গতকালের বৈঠকে প্রেসিডেন্ট পুতিন এই বিরোধে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালনের চেষ্টা করে বলেন, কিম জং-উনকে তার পরমাণু অস্ত্র ধ্বংসের বিনিময়ে আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা গ্যারান্টি দিতে হবে।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট