শেষ মুহূর্তের গোলে জিতেছে ইংল্যান্ড

শেষ মুহূর্তের গোলে জিতেছে ইংল্যান্ড

অধিনায়কের জোড়া গোলে প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। চলতি রাশিয়া বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে তিউনিশিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়েছে ইংল্যান্ড। দুইটি গোলই করেন হ্যারি কেন।

বাংলাদেশ সময় সোমবার মধ্যরাত ১২টায় রাশিয়ার ভোলজোগ্রাদ স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় ইংল্যান্ড ও তিউনিশিয়া। প্রায় ড্র হতে যাওয়া ম্যাচের ভাগ্য একদম শেষ মুহুর্তে বদলে দেন ইংলিশ অধিনায়ক ও স্ট্রাইকার হ্যারি কেন।

নির্ধারিত ৯০ মিনিটের পর অতিরিক্ত সময়ের প্রথম মিনিটে দলের জন্য জয়সূচক গোলটি করেন তিনি। কর্ণার থেকে আসা ক্রসে মাথা লাগিয়ে অধিনায়কের কাছে দেন হ্যারি ম্যাকোয়ার। ফিরতি হেডে তিউনিসিয়ার জালে বল জড়ান ইংলিশ দলপতি।

ম্যাচে ১৫তম মিনিটে ইনজুরিতে পড়ে মাঠ ছাড়েন দলের প্রথম গোলরক্ষক মুয়েজ হাসান। তবে প্রথম চার মিনিটের মধ্যেই ইংল্যান্ডকে তিনবার গোল বঞ্চিত করেছেন তিনি। এর মাঝে তৃতীয়টি শেষ পর্যন্ত অফসাইড প্রমাণিত হলেও, সেটাই কাল হয় তার জন্য। জেসি লিনগার্ডকে আটকাতে গিয়ে বাঁ কাঁধে চোট পান মুয়েজ। সে চোটেই মিনিট এগারো পরে মাঠ ছাড়েন।

ইংল্যান্ড অবশ্য এ গোলের লিড বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি। ৩৫তম মিনিটে গোল শোধ করে দেয় তিউনিসিয়া।  ডি-বক্সের মধ্যে তিউনিশিয়ার ফখরুদ্দিন বিন ইউসুফকে ফাউল করেন ইংলিশ ডিফেন্ডার কাইল ওয়াকার। পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন রেফারি। আর পেনাল্টি থেকে গোল করে ম্যাচে সমতা আনেন ফারজানি সাসি।

গোলের সমতা নিয়ে বিরতিতে যায় উভয় দল। বিরতির পর দুই দলই গোল করতে মরিয়া হয়ে ওঠে। এক পর্যায়ে মনে হচ্ছিল ম্যাচটি ১-১ সমতায় শেষ হতে যাচ্ছে। কিন্তু অতিরিক্ত সময়ে তথা (৯০+১) মিনিটে ট্রিপিয়ারের কর্নার কিক থেকে প্রথমে ব্যাক পোস্টের দিকে হেড করেন মাগুইরি। এরপর সেখান থেকে হেড করে বল জালে পৌঁছে দেন হ্যারি কেইন। আর এতেই জয় নিশ্চিত হয় ইংলিশদের।

ইংল্যান্ডের পরবর্তী ম্যাচ আগামী ২৪ জুন। এদিন পানামার মুখোমুখি হবে তারা। এরপর ২৮ জুন বেলজিয়ামের মুখোমুখি হবে তারা। অন্যদিকে, আগামী ২৩ জুন বেলজিয়ামের মুখোমুখি হবে তিউনিসিয়া। এরপর ২৮ জুন টুর্নামেন্টের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে পানামার মুখোমুখি হবে তিউনিসিয়া।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট