শেষ যাত্রায় শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় শ্রীদেবীর চিরবিদায়

শেষ যাত্রায় শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় শ্রীদেবীর চিরবিদায়

শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় চিরবিদায় নিলেন বলিউড অভিনেত্রী শ্রীদেবী। বুধবার ভারতীয় সময় সাড়ে ৫টার দিকে এ অভিনেত্রীর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। এ সময় কাপুর পরিবারের সদস্য ও বলিউড তারকারা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া শ্মশানের বাহিরে অবস্থান করছিলেন এ অভিনেত্রীর অসংখ্য ভক্ত।

এর আগে এ অভিনেত্রীকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা দেয়া হয়। এছাড়া শেষবারের মতো এ অভিনেত্রীর প্রতি শ্রদ্ধা জানান বলিউডে তার সহকর্মী ও ভক্তবৃন্দ। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আজ সকাল সাড়ে নয়টা থেকে পশ্চিম আন্ধেরির লোখান্ডওয়ালা কমপ্লেক্সের সেলিব্রেশন স্পোর্টস ক্লাবে শ্রীদেবীর মরদেহ রাখা হয়।

বলিউডের প্রথম সারির অভিনয়শিল্পী ও ভক্তরা সকাল থেকেই শ্রীদেবীর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আসতে শুরু করেন। এখানে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় ভিলে পার্ল সেবা সমাজ শ্মশানে। শেষ সময়ে এ অভিনেত্রীর শরীরে মোড়ানো ছিল তার প্রিয় লাল-সোনালী রঙের কাঞ্চিপুরম শাড়ি। শ্মশানে নেয়ার সময় রাস্তার দুই পাশে ভিড় করে এ অভিনেত্রীর শত শত ভক্ত।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি না ফেরার দেশে চলে যান বলিউড অভিনেত্রী শ্রীদেবী। প্রাথমিকভাবে জানা যায়, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন তিনি। তবে সোমবার শ্রীদেবীর ময়নাতদন্ত ও ফরেনসিক রিপোর্ট হাতে পায় দুবাই পুলিশ। এতে বলা হয়, হৃদরোগে নয়, দুবাইয়ের জুমেইরাহ এমিরেটস টাওয়ারে বাথরুমের বাথটাবের পানিতে দম আটকে মৃত্যু হয়েছে শ্রীদেবীর।

মঙ্গলবার দুবাই পুলিশ প্রয়াত এ অভিনেত্রীর মরদেহ ভারতে নেওয়ার অনুমতিসংক্রান্ত কাগজ ও মরদেহ ভারতের দূতাবাসের মাধ্যমে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে। এরপরই মরদেহ ভারতে নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়। মঙ্গলবার রাত ১০টা ৩০ মিনিটে শ্রীদেবীর মরদেহ মুম্বাই পৌঁছায়। একটি প্রাইভেট জেটে এ অভিনেত্রীর মরদেহ দুবাই থেকে আনা হয়।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট