‘সংসদে যাদের প্রতিনিধি রয়েছে তাদের নিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করা হবে’

‘সংসদে যাদের প্রতিনিধি রয়েছে তাদের নিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করা হবে’

একাদশ নির্বাচন সামনে সাবেক রাষ্ট্রপতি বিকল্প ধারা সভাপতি বদরুদ্দোজা চৌধুরী ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামালের নেতৃত্বাধীন ‘জাতীয় ঐক্য’র ঘোষণার সমালোচনা করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি বলেন, ‘জাতীয় ঐক্য কে কে করেছে। জিরো প্লাস জিরো ইকুয়াল টু জিরো। সুতরাং এসব কিছুই কাজে আসবে না।’

রোববার সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে ফিমেইল একাডেমির উদ্যোগে মেয়েদের শিক্ষা ও নারীর ক্ষমতায়ন শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী এই মন্তব্য করেন।

আগামীতে আর নির্বাচনে না করার অঙ্গীকার পূণর্ব্যক্ত করে মুহিত জানান, তাঁর আসনে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন অথবা তাঁর ছোট ভাই এম এ মোমেন নির্বাচনে করবেন। তাদের মধ্যে যে দলীয় মনোনয়ন পাবেন তিনিই নির্বাচনে তাঁর (অর্থমন্ত্রী) পক্ষে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধিত্ব করবেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, সব দল যাতে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারে, বর্তমান সরকার তা ২০১৪ সালে নিশ্চিত করেছে। এটা নতুন করে নিশ্চিত করার কিছু নেই।

ডিসেম্বরে জাতীয় নির্বাচন হবে জানিয়ে আওয়ামী লীগের এ উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য বলেন, সংসদে যাদের প্রতিনিধি রয়েছে তাদের নিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করা হবে।

সেমিনারে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েস, জাতিসংঘের স্থানী প্রতিনিধি অর্থনীতিবিদ ড. মোমেনসহ ফিমেইল একাডেমির দাতা সদস্যরা। এর আগে মন্ত্রী হেলিকপ্টারে দিরাই উপজেলা সদরে আসেন। সেমিনারে ফিমেইল একাডেমির শিক্ষার্থী ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট