সংস্কার ভাঙার বার্তা দিয়ে অস্কার জিতলেন রাইকা

সংস্কার ভাঙার বার্তা দিয়ে অস্কার জিতলেন রাইকা

অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডসের ৯১তম আসরে সংস্কার ভাঙার বার্তা দিয়ে সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য প্রামাণ্যচিত্র বিভাগে পুরস্কার পেলো ইরানি-মার্কিন রাইকা জেহতাবচি পরিচালিত ‘পিরিয়ড এন্ড অব সেনটেন্স’।

নেটফ্লিক্স প্রযোজিত ২৬ মিনিট ব্যাপ্তির স্বল্পদৈর্ঘ্য প্রামাণ্যচিত্রটিতে তুলে ধরা হয়েছে ভারতের দিল্লির বাইরে হাপুর গ্রামে অল্প খরচে নারীদের স্যানিটারি প্যাড বানানোর যন্ত্র স্থাপনের গল্প।

দিল্লি থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরের হাপুর গ্রাম। সেখানকার বাসিন্দাদের নিয়েই ২৫ বছর বয়সি ইরানি-মার্কিন পরিচালক রাইকার তৈরি এই ছবি সেরা তথ্যচিত্র হিসেবে জিতে নিয়েছে অস্কার। গ্রামীণ ভারতে ঋতুস্রাব নিয়ে কী ধরনের ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে, গ্রামের নারী-পুরুষকে সচেতন করতে কী করা হচ্ছে, প্যাড মেশিন বসিয়ে কী ভাবে গ্রামের মেয়েরা একে অন্যের পাশে দাঁড়াচ্ছেন, ‘ফ্লাই’ নামে স্যানিটারি প্যাড তৈরি করে কী ভাবে উত্তরণের কথা ভাবছেন তারা— ২৫ মিনিট দৈর্ঘ্যের ছবির প্রতিপাদ্য এটাই।

পুরস্কার হাতে কেঁদে ফেলে অস্কার-মঞ্চে রাইকা বলেছেন, ‘আমার পিরিয়ডস হয়েছে বলে কাঁদছি না। বিশ্বাস করতে পারছি না, ঋতুস্রাব নিয়ে তৈরি ছবি অস্কার পেয়েছে!’

২০১৭ সালের জানুয়ারি থেকে কাজ শুরু হয়। হাপুরের নানা বয়সের মহিলাকে শামিল করা হয় তাতে। পুরো অভিজ্ঞতা ক্যামেরায় ধরে রাখেন রাইকা। উদ্দেশ্য, সচেতনতা বাড়াতে ব্যবহার করা হবে এই তথ্যচিত্র। তারপর থেকে গুটি গুটি পায়ে এগিয়ে অস্কার জয়।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট