সচিনের নাম শুনলে লজ্জা পাই

সচিনের নাম শুনলে লজ্জা পাই

বিরাট কোহলি চলতি আইপিএল-এর ব্যাটিং সেনসেশন। তাঁর ব্যাটিং স্টাইল দেখে অনেকেই ক্রিকেটের ঈশ্বর সচিন টেন্ডুলকারের সঙ্গেও তুলনা করেন। এইদিকে বিরাট নাকি সচিনের নাম শুনলে লজ্জা পান। সম্প্রতি এমন কথাই জানিয়েছেন বিরাট কোহলি।

তবে এবার আসল কারণটা তবে খোলসা করা যাক। মূল সমস্যা হল, সকলেই সচিনের সঙ্গে তাঁর তুলনা টানছেন। বিরাটের কথায়,  সচিনের সঙ্গে কারোরই তুলনা করা যায় না। অন্তত আমার সঙ্গে তো নয়ই। যতবার সচিনের সঙ্গে আমার তুলনা টেনে আনা হয়, ততবারই আমি চরম লজ্জাবোধ করি।

তিনি সাফ জানিয়ে দিলেন, ছোটোবেলা থেকে সচিনকে দেখেই তিনি বড় হয়েছেন। নিজের মধ্যে অনুপ্রেরণা খুঁজে পেয়েছেন। তাঁর মতে, বিশ্বের যে কোনও ক্রিকেটারের থেকেই সচিন দুই কদম এগিয়েই থাকবেন। সচিন ট্যালেন্ট নিয়েই জন্মেছেন, আর আমাকে এটা অর্জন করতে হয়েছে।

প্রসঙ্গ উঠেছে তাঁর অধিনায়কত্ব নিয়েও। তিনি জানালেন, আমার আজও মনে হয়, টেস্ট ক্রিকেটে আমার অনেকটা পথ চলা বাকি রয়েছে। টেস্ট ক্রিকেটে আমি একের পর এক সিরিজ জয় চাই। দলের জন্য এবং দেশের জন্য আমি ম্যাচ জিততে চাই। দলের জয়কে পরিসংখ্যান কিংবা অন্য কিছু দিয়ে বিচার করা যাবে না।

পাশাপাশি, তিনি এও জানালেন দেশের টেস্ট ক্রিকেট ভবিষ্যত নিয়ে তিনি একেবারেই শঙ্কিত নন। বর্তমানে এই ফরম্যাটটি ফের জনপ্রিয়তা অর্জন করতে শুরু করেছে। যদি কেউ মাঠের মধ্যে নিজেকে উজাড় করে দিতে পারে, তাহলে এর চেয়ে বেশি আনন্দ আর কিছুতেই হতে পারে না।

উলেখ্য, একদিনের ক্রিকেটে মোট ৫০টা সেঞ্চুরি করেছেন সচিন টেন্ডুলকার। কোহলি, এই রেকর্ডের অনেকটাই কাছাকাছি চলে এসেছেন। কোহলির নামের পাশে ইতিমধ্যেই ২৫টি শতরানের মাইলফলক যুক্ত হয়েছে। তবে অর্ধেকটা পথ এখনও বাকি রয়েছে। তবে সবথেকে বড় কথা, বিগত দুই বছর ধরে কোহলির মধ্যে যে ধারাবাহিকতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে, তা এককথায় অনবদ্য।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট