সাকিবকে প্রশংসায় ভাসালেন সানরাইজার্সের কোচ টম মুডি!

সাকিবকে প্রশংসায় ভাসালেন সানরাইজার্সের কোচ টম মুডি!

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিবকে টিমে পেয়ে খুব খুশী টম মুডি। সাকিবের প্রশংসা করে টম মুডি বলেন, “সাকিব এমন একজন ব্যাটসম্যান, ৩ থেকে ৭, যে কোনো ব্যাটিং পজিশনে ব্যাটিং করার অ্যাবিলিটি তার আছে। পাওয়ার প্লে থেকে শুরু করে ডেথ ওভার, যেকোনো সময় তার হাতে বল তুলে দেয়া যায়…. সাকিবের মতো ক্রিকেটার যেকোনো দলের জন্যেই অনেক বড় সম্পদ।”

সাকিবের অন্তর্ভুক্তি হায়দ্রাবাদ দলকে দিয়েছে নতুন এক মাত্রা। ক্রিকবাজ, ক্রিকইনফো থেকে শুরু করে স্টার স্পোর্টস, সবখানেই হায়দ্রাবাদের সেরা একাদশে ছিলো সাকিবের নাম। এবারের আইপিএলে হায়দ্রাবাদ টিমে সাকিব যে একরকম অটোচয়েজ, তা বলাই যায়।

আইপিএলে সাকিব ছিলো বরাবরই একজন সফল ক্রিকেটার। এর আগে ২০১২ ও ২০১৪ আইপিএলে কেকেআরকে শিরোপা জেতাতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রেখেছিলো সাকিব। তারপরো কেকেআর টিমে সাকিব ছিলো অবহেলিত। ৪৩টা ম্যাচ খেলে মাত্র ৩২টা ইনিংসে ব্যাটিং করার সুযোগ পেয়েছেন। ২২ গড়ে ১৩০ স্ট্রাইকরেটে সাকিব করেন ৪৯৮ রান। বোলিংয়ে সাকিব ছিলো আরো ধারালো! ৪২ ম্যাচে বোলিংয়ের সুযোগ পেয়ে ৪৩টা উইকেট নিয়ে কেকেআরের হয়ে সেকেন্ড হায়েস্ট উইকেট টেকার ছিলেন সাকিব। রান দেয়ার ক্ষেত্রেও সাকিব ছিলো বেশ কৃপণ! ওভারপ্রতি দিয়েছে মাত্র ৭.১৭ রান। এতো ভালো পারফর্মেন্সের পরও সাকিবকে ছেড়ে দেয়ায় কেকেআরকে কম সমালোচনা শুনতে হয় নি।

এদিকে ২০১৬ সালে শিরোপা জেতা সানরাইজার হায়দ্রাবাদ এবছর শক্তিশালী দল গঠন করেছে। বিশ্বব্যাপি বিভিন্ন ফ্রঞ্জাইসি লীগে খেলা টি-টুয়েন্টির ফেরিওয়ালা সাকিবকে দলে ভিড়িয়ে তাদের দলের শক্তি যে অনেকটাই বেড়ে গেছে, তা স্বীকার করেছেন কোচ টম মুডি স্বয়ং নিজেই। ১ এপ্রিল আইপিএল মাতাতে ভারত যাচ্ছেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। ৯ এপ্রিল নিজেদের প্রথম ম্যাচে সাকিবের দল মুখোমুখি হবে রাজস্থান রয়েলসের।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট