সারাদেশে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে পবিত্র শবে বরাত পালন

সারাদেশে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে পবিত্র শবে বরাত পালন

ইবাদত, বন্দেগী, জিকির আজকারের মধ্যদিয়ে যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদায় রোববার দিবাগত রাতে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে পবিত্র শবেবরাত পালিত হয়েছে। ধর্মপ্রাণ মুসুল্লিগণ সারারাত জেগে মহিমান্বিত এ রজনীতে মহান আল্লাহর নৈকট্য লাভের আশায় প্রার্থনা করেন।

বায়তুল মোকাররমসহ দেশের সকল মসজিদ ও বাড়িতে বাদ এশা থেকে নফল নামাজ আদায়, কোরআন তেলওয়াত, হামদ ও নাত পরিবেশন, ওয়াজ মাহফিল, জিকির, মিলাদ ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

রাজধানীর বায়তুল মোকাররম মসজিদে নফল নামাজ আদায়, ওয়াজ মাহফিল, কোরআন তেলওয়াত, হামদ, নাত, জিকির, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ সারারাত এখানে ইবাদত বন্দেগী করেন। মহিমান্বিত এ রজনীতে মুসলিম উম্মাহ’র সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা এবং দেশের সুখ, শান্তি, কল্যাণ, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা এই মহিমান্বিত রজনীকে পবিত্র রাত হিসেবে  গণ্য করে থাকেন। মুসলমানদের বিশ্বাস, এই মহিমান্বিত রাতে মহান আল্লাহতায়ালা মানুষের ভাগ্য অর্থাৎ তার নতুন বছরের ‘রিজিক’ নির্ধারণ করে থাকেন। রাতব্যাপী ইবাদত, বন্দেগী, জিকির-আজকার ছাড়াও এই পবিত্র রাতে মুসলমানরা মৃত মা-বাবা, আত্মীয়-স্বজনসহ প্রিয়জনদের কবর জেয়ারত করেন। এই রাতের বিশেষ অনুষঙ্গ কবর জিয়ারতের পাশাপাশি মুসলিললদের ব্যাপক উপস্থিতিতে মসজিদে মসজিদে এশার নামাজের পর থেকেই দফায় দফায় ওয়াজ মাহফিল, মিলাদ ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয় । সবশেষে বাদ ফজর আলললাহর রহমত কামনায় মোনাজাতের মধ্যদিয়ে পবিত্র লাইলাতুল বরাতের সমাপ্তি হয়।

বাংলাদেশ টেলিভিশন, বাংলাদেশ বেতারসহ বিভিন্ন বেসরকারি টিভি চ্যানেল ও বেতার এ উপলক্ষে ধর্মীয় নানা অনুষ্ঠান সম্প্রচার করে । দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে জাতীয় দৈনিকগুলোতে বিশেষ নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে।

পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া পৃথক পৃথক বাণী দিয়েছেন। এসব বাণীতে তাঁরা মুসলিম উম্মার  ঐক্য, দেশ-জাতির কল্যাণ ও বিশ্বশান্তি কামনা করেছেন।

পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে আজ সোমবার সরকারি ছুটি।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক