সিদ্ধান্ত বদল করলেন সাকিব আল হাসান

সিদ্ধান্ত বদল করলেন সাকিব আল হাসান

নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন সাকিব আল হাসান। রোববার তার আওয়ামীলীগের মনোনয়ন কিনতে যাওয়ার কথা থাকলেও এবার তিনি আর প্রার্থী হচ্ছে না বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

শনিবার সকাল থেকেই বড় খবর ছিল আওয়ামীলীগের মনোনয়ন কিনছেন মাশরাফি মর্তুজা ও সাকিব আল হাসান। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা মো. আবু নাসেরও এই দুই তারকার মনোনয়ন কিনতে যাওয়ার খবর নিশ্চিত করেছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন মাশরাফি নড়াইল-২ ও সাকিব মাগুরা-১ থেকে নির্বাচনে প্রার্থী হতে আওয়ামীলীগের ফরম কিনবেন।

সাকিবের ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে, মনোনয়ন কেনার কথা থাকলেও রাতে দিকেই সিদ্ধান্ত পালটে ফেলেন সাকিব। তবে কেন তার এই মত বদল। সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

গত ২৯ মে একনেকের এক সভা শেষে এই দুই তারকা রাজনীতিতে আসতে পারেন বলে জানিয়েছিলেন মোস্তাফা কামাল। পরিকল্পনামন্ত্রী সেসময় বলেছিলেন, ‘ভবিষ্যতে মাশরাফি নির্বাচন করবে। এটা শিওর। ও (মাশরাফি বিন মুর্তজা) ভালো মানুষ। তাকে ভোট দেবেন।’ তিনি জানিয়েছিলেন, ‘সাকিবও আসতে পারে। তবে তার সম্ভাবনা কম, সে তো খেলছে।’

সাকিব মত পাল্টালেও মাশরাফি রোববারই মনোনয়ন কিনতে যাওয়ার কথা। বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক নিজ এলাকায় ‘নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন’ নামের এক সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন করে বেশ কিছুদিন থেকেই কাজ করে যাচ্ছিলেন। এবার সরাসরি রাজনীতিতে আসার গুঞ্জন তার।

২০০১ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষিক্ত মাশরাফি ক্যারিয়ারের শেষ দিকে থাকলেও ২০০৬ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখা সাকিবের সামনে এখনো আছে লম্বা সময় খেলার সুযোগ।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট