সেনার পোশাকে পদ্মভূষণ পুরস্কারে ভূষিত ধোনি

সেনার পোশাকে পদ্মভূষণ পুরস্কারে ভূষিত ধোনি

২০১১-তে দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। কপিল দেবের পর ভারতীয় আবার বিশ্বসেরা মুকুট আসে মহেন্দ্র সিং ধোনির হাত ধরে। বিশ্ব জয়ের ৭ বছর পূর্ণ হয়েছে সোমবার এবং কাকতালীয় হলেও সত্য, এইদিনই রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের হাত থেকে পদ্মভূষণ নেন সেদিনের ভারত অধিনায়ক।

পদ্মভূষণ ভারতের তৃতীয় সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মাননা। ১৯৫৪ সালের ২ জানুয়ারি ভারতের রাষ্ট্রপতি কর্তৃক এই পুরস্কার প্রবর্তিত হয়। ভারতের অসামরিক সম্মাননাগুলির মর্যাদাক্রম অনুসারে এই সম্মাননার স্থান ভারতরত্ন ও পদ্মবিভূষণের পরে, কিন্তু পদ্মশ্রীর আগে।

ধোনির আগে এই সম্মান পেয়েছিলেন আর একজন ভারতীয় ক্রিকেটার। তিনিও বিশ্বকাপ জিতেছিলেন। তার নাম কপিল দেব।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে আগেই ধোনিকে লে. কর্নেলের সাম্মানিক পদ দেয়া হয়েছিল। তাই এ দিন সেই সামরিক উর্দিতেই এসেছিলেন তিনি। যে ছবি ছড়িয়ে পড়তেই সাড়া পড়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সেনা পোশাক থেকে অবশ্য খুব তাড়াতাড়ি চেন্নাই সুপার কিংসের জার্সিতে ফিরতে হবে ধোনিকে। আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচেই মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে নামছে সিএসকে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ছক্কা মেরে ম্যাচ শেষ করেছিলেন ধোনি। পদ্মভূষণ দেয়ার অনুষ্ঠানে তাই স্মৃতি রোমন্থন করে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই নিজেদের টুইটারে ধোনির সেই ছক্কার ছবিটি পোস্ট করেছে। সঙ্গে লিখেছে, ‘‌প্রথম ভারতীয় নাগরিক হিসেবে মহাকাশে গিয়েছিল একজন। আর একজন প্রথম ভারতীয় নাগরিক হিসেবে ছক্কা মেরে দেশকে বিশ্বকাপ জিতিয়েছিল।’‌

১৯৮৪–র ২ এপ্রিল মহাকাশে গিয়েছিলেন রাকেশ শর্মা। তার ঠিক ২৭ বছর পর ২ এপ্রিল ভারত জিতেছিল বিশ্বকাপ। ঠিক তার ৭ বছর পর ওইদিনেই ধোনি পেলেন পদ্মভূষণ।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট