সোলেইমানিকে ১ নম্বর সন্ত্রাসী বললেন ট্রাম্প

সোলেইমানিকে ১ নম্বর সন্ত্রাসী বললেন ট্রাম্প

ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে এক নম্বর সন্ত্রাসী বলে অভিহিত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। একই সঙ্গে তিনি সোলেইমানিকে হত্যার পক্ষেও সাফাই গেয়েছেন।

গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা চালিয়ে সোলেইমানিকে হত্যা করা হয়। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্দেশেই ওই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। ট্রাম্প বলেছেন, বিশ্বের এক নম্বর সন্ত্রাসী ছিলেন জেনারেল সোলেইমানি।

এক সংবাদ সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, আমরা সোলেইমানিকে হত্যা করেছি। সব দিক থেকেই তিনি ছিলেন বিশ্বের শীর্ষ সন্ত্রাসী। এই ব্যক্তি অনেক মার্কিন নাগরিককে হত্যা করেছেন। এবার আমরা তাকে হত্যা করলাম। ট্রাম্প আরও বলেন, ডেমোক্রেটরা তার পক্ষ নিয়ে সাফাই গাইতে চায়। এটা আমাদের জন্য লজ্জাজনক।

এদিকে, সোলেইমানিকে হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত বুধবার ইরাকে মার্কিন ঘাঁটিতে হামলা চালায় ইরান। এর কয়েক ঘণ্টা পরেই তেহরানের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউক্রেনের একটি যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্ত হয়। এই ঘটনায় ইরানের হাত রয়েছে বলে গুঞ্জন উঠলেও প্রথমে তা অস্বীকার করে তেহরান। পরে অবশ্য ইরান স্বীকার করেছে যে, ভুলবশত গুলি চালিয়ে ওই বিমানটি ভূপাতিত করা হয়েছে।

বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় নিহতদের মধ্যে অধিকাংশই ইরানি। এদিকে, ক্ষমতাসীনরা বিমান দুর্ঘটনার বিষয়ে মিথ্যাচার করেছেন এমন অভিযোগ এনে বিক্ষোভ শুরু করেছেন ইরানিরা। দেশটিতে ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে তৃতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ চলছে।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট