সোসিয়েদাদের বিপক্ষে বার্সেলোনার জয়

সোসিয়েদাদের বিপক্ষে বার্সেলোনার জয়

প্রতিপক্ষের মাঠে শুরুতেই পেছনে পড়েছিল বার্সেলোনা। এরপর দ্বিতীয়ার্ধেই ঘুরে দাঁড়ায় লিওনেল মেসিরা। শেষ পর্যন্ত লিডও নেয় আরনাস্তে ভালভার্দের শিষ্যরা। তাতেই রিয়াল রিয়াল সোসিয়েদাদকে হারিয়ে চলতি লা লিগায় টানা চতুর্থ জয়ের দেখা পেল কাতালানরা।

শনিবার সোসিয়েদাদের মাঠে ২-১ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। দলটির হয়ে ১টি করে গোল করেন লুইস সুয়ারেজ ও উসমান ডেম্বেলে।

ম্যাচের ১২তম মিনিটেই গোল হজম করে বসে বার্সেলোনা। প্রায় ৪০ গজ দূর থেকে ফ্রি-কিকে উড়ে আসা বল বিপদমুক্ত করতে পারেননি বার্সার ডিফেন্ডাররা। ফাঁকায় বল পেয়ে আলতো ভলিতে বল জালে জড়িয়ে দেন সোসিয়েদাদের ডিফেন্ডার আর্তিজ এলুসতোন্দো।

সেই গোল শোধ করতে বার্সেলোনাকে অপেক্ষা করতে হয়েছিল ৬৩ মিনিট পর্যন্ত। মাঝখানে মেসির একাধিক গোলের সুযোগ ব্যর্থ না হলে এত সময় পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকতে হয় না দলটিকে। গোল খেয়েই পরিশোধের জন্য মরিয়া হয়ে উঠে বার্সেলোনা। মুহুমুহু আক্রমণে তটস্থ করে রাখে প্রতিপক্ষের ডিফেন্স। কিন্তু ওই পর্যন্তই। সোসিয়েদাদের ডিফেন্সে গিয়েই সব আক্রমণ ফিরে আসে।

শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বার্সেলোনা। বিরতি থেকে ফিরে ম্যাচের ৬৩ মিনিটে বার্সাকে সমতায় ফেরান লুইস সুয়ারেজ। কর্নার থেকে আসা বলে জেরার্ড পিকের হেড বিপদমুক্ত করতে পারেনি স্বাগতিক গোলরক্ষক। পিকের সেই হেডে স্যামুয়েল উমতিতির পা ছুঁয়ে বল পড়ে সুয়ারেজের পায়ে। জটলার মধ্যে বল পেয়ে জালে পাঠান ৩১ বছর বয়সী এ উরুগুইয়ান ফরোয়ার্ড।

সুয়ারেজের গোলে স্বস্তি পাওয়ার পর মাত্র দুই মিনিট পরই জয়সূচক গোল পেয়ে যায় বার্সা। কর্নার থেকে উড়ে আসা বল স্বাগতিক গোলরক্ষক রুলি পাঞ্চ করেছিলেন ঠিকই, কিন্তু তার পাঞ্চে ফাঁকায় দাঁড়ানো ডেম্বেলে বল পেয়ে বক্সের ভেতর থেকে জোরালো শটে জালে পাঠান বিশ্বকাপ জয়ী ফরাসি স্ট্রাইকার। শেষ পর্যন্ত আর কোন দল গোল না পাওয়ায় ২-১ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।

চার ম্যাচে পূর্ণ ১২ পয়েন্ট নিয়ে লা লিগার পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে আছে বার্সেলোনা। সমান সংখ্যক ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রিয়াল মাদ্রিদ।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট